প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইন্দুরকানীতে জমি বিরোধের জের ধরে বড় বোনের হামলায় ছোট বোন নিহত, গ্রেফতার ৪

খেলাফত হোসেন : [২] এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অভিযুক্ত বড় বোন কামরুন্নাহার সহ ৪ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

[৩] পারিবারিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, শনিবার দুপুরে উপজেলার পাড়েরহাট এলাকায় বাদুরা গ্রামের মৃত আঃ রব তালুকদারে বড় মেয়ে কামরুন্নাহার মিনু (৫০) এর সাথে তার ছোট বোন মাকনু আক্তার (৩৫) এর সাথে জমিজমা নিয়ে তর্কে লিপ্ত হয়।

[৪] পরে এক পর্যায়ে বড় কামরুন্নাহার ও ছোট বোন মাকনু আক্তার সহ দুই পরিবারের ছেলে মেয়েরা হামলায় জড়িয়ে পড়ে। এসময় বড় বোন ছোট বোনকে সজোরে ধাক্কা মারলে ছোট ঘরের মেঝেতে পড়ে গিয়ে মাথায় প্রচন্ড আঘাত পেয়ে অজ্ঞান হয়ে যান। স্বজনরা তাকে উদ্ধার করে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

[৫] স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ মহসিন হাওলাদার জানান, মৃত আঃ রব তালুকদারের পাড়েরহাট বন্দরে ৪টি দোকান ঘর সহ অনেক সম্পদ রেখে গেছেন। তার ৫ ছেলে ও ২ মেয়ে। কিন্তু ছেলেদের মধ্যে কেহই বেচে নেই। ওই দোকান ঘর ও সম্পত্তি ভাগ-বন্টন করতে শ্বশুর বাড়ি থেকে পাড়েরহাট পিতার বাড়িতে আসে। জমি ভাগ-বন্টনের বিষয় তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বড় বোনের হাতে ছোট বোন নিহত হয়।
[৬] নিহত মাকনু আক্তারের স্বামী জয়পুরহাট হাজী মহসিন কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ কামলা হোসেন জানান, আমার স্ত্রী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারি শিক্ষক মাকনু আক্তার ও তার বড় বোন কামরুন্নাহার মিনুর মধ্যে জমি সংক্রান্ত বিরোধ ছিল। এ কারণেই ঘটনারদিন তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে বড় বোনের আঘাতে আমার স্ত্রী মাকনু আক্তার পড়ে গিয়ে ঘটনা স্থলেই নিহত হয়।

[৭] ইন্দুরকানী থানার ওসি (তদন্ত) এম, শামীম আহম্মেদ জানান, জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বড় বোনের হাতে ছোট বোন নিহতের ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য অভিযুক্ত বড় বোন সহ ৪ জনকে আটক করা হয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত