প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অনুমোদনের পর আবারও অনুমোদনের অপেক্ষায় বিসিবির কেন্দ্রীয় চুক্তি

রাহুল রাজ: [২] গত ১৫ জুন বোর্ড সভা শেষে বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন বলেছিলেন কেন্দ্রীয় চুক্তি অনুমোদন দিয়ে দিয়েছেন। কেবল কিছু জায়গায় সামান্য কাজ বাকি দ্রুতই সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানানো হবে। প্রায় দুই মাস পর এসেও প্রকাশ হয়নি সে তালিকা। কেনো এতো বিলম্ব হচ্ছে তা খোলাসা করেছেন জাতীয় দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

[৩] এখন কিছু জায়গায় কাটা ছেঁড়া, ভবিষ্যত পরিকল্পনা ও ব্যাখ্যা পরিষ্কার করা বাকি আছে বলেই কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকা প্রকাশে দেরি হচ্ছে বলছেন এই নির্বাচক।

[৪] সর্বশেষ বোর্ড সভাতেই ক্রিকেটারদের কে কেনো বাদ পড়ছে এবং অন্তর্ভুক্ত হচ্ছে সে ব্যাখ্যা জুড়ে দিতে নির্দেশ দেন বিসিবি সভাপতি। সঙ্গে ক্রিকেটারদের কে কোন ফরম্যাটে খেলতে চায় সেসব জানতেও এবারের চুক্তিপত্রে আসে কিছু ভিন্নতা।

[৫] উপরে উল্লেখিত সব কাজই ওই বোর্ড সভার সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যে গুছিয়ে এনেছিলো নির্বাচক ও ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ। এরপরও কেন্দ্রীয় চুক্তির তালিকা সামনে আসতে পরবর্তী বোর্ড সভা পর্যন্ত অপেক্ষা করা অবাক করার মতো বিষয়ই।

[৬] শনিবার (১৪ আগস্ট) মিরপুরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, সাবমিট (তালিকা) করাই আছে, এটা কিন্তু একটা সময়ের ব্যাপার। এটা বোর্ড সভায় অনুমোদনের দরকার আছে, তারপর সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দেয়া হবে। এটার জন্য তো অপেক্ষা করতে হবে একটু।

[৭] আমাদের কাজ তো আমরা এগিয়ে দিয়েছি, বাকিটা হয়তো নিউজিল্যান্ড সিরিজের পর হয়ে যাবে। কিছু কিছু জায়গায়য় তো প্রশ্ন থাকে। অনেকদিন ধরেতো বোর্ড সভা হচ্ছে না। বোর্ড সভার জন্যই পূর্বের চেয়ে একটু সময় লাগছে। তবে আশা করি আগামী মাসেই হবে।

[৮] একবার বোর্ড সভায় অনুমোদন পাওয়ার পর আবার বোর্ড সভায় অনুমোদন কেনো লাগছে এমন প্রশ্নের জবাবে নান্নু যোগ করেন, এখানে কিছু জিনিস আছে যেগুলোর ব্যাখ্যা আমাদের দিতে হচ্ছে। নির্দিষ্ট করেতো আপনাদের এভাবে বলতে পারিনা কোন কোন জায়গা নিয়ে ব্যাখ্যা দিতে হচ্ছে। সম্পাদনা: মিনহাজুল আবেদীন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত