প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জুলাই ঐতিহাসিকভাবেই ১৪২ বছরের উষ্ণতম মাস

আব্দুল্লাহ মামুন: [২] যুক্তরাষ্ট্রের আবহাওয়া কর্মকর্তারা এই তথ্য জানিয়েছেন। ১৪২ বছরের ইতিহাসে জুলাই ছিলো সবচেয়ে উষ্ণতম মাস। তার ওপর এ বছরে যুক্তরাষ্ট্র ও ইউরোপে তাপদাহের তীব্রতা অস্বাভাবিক বেশি ছিল। গত মাসে পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা ছিল ১৬.৭৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা গত কয়েক বছরের রেকর্ডভাঙা তাপমাত্রাকেও ছাড়িয়ে গেছে। ২০২০ সালের রেকর্ডকে ০.০১ সেলসিয়াসের ব্যবধানে হারিয়ে দিয়েছে এ বছরের জুলাইয়ের তাপমাত্রা। গত ১৪২ বছর ধরে বৈশ্বিক তাপমাত্রার রেকর্ড রাখা হচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রে। যার মধ্যে এবারের জুলাই মাস ছিল বিশ্বের সবচেয়ে উষ্ণতম মাস। সময়টিভি।

[৩] রেকর্ডের ইতিহাসে গত সাত বছরের (২০১৫-২০২১) জুলাইয়ের উষ্ণতা আগের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। এমন তথ্য দিয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ওসেনিক অ্যান্ড অ্যাটমোসফেরিক অ্যাডমিনিসট্রেশনের (এনওএএ) আবহাওয়া বিশেষজ্ঞ আহিরা সানচেজ-লুগো। বিংশ শতাব্দীর জুলাই মাসের গড় তাপমাত্রার চেয়ে এ বছরের জুলাইয়ের তাপমাত্রা ০.৯৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস বেশি ছিল। সমকাল।

[৪] ১৪২ বছর আগে আবহাওয়ার তথ্য সংরক্ষণ শুরু হয়। এরপর থেকে এটাই বিশ্বের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা। এর আগের রেকর্ডটি ছিল ২০১৬ সালের। ২০১৯ ও ২০ সালেও ২০১৬ সালের মতো একই তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছিল। জলবায়ু পরিবর্তনের দীর্ঘমেয়াদী প্রভাবের কারণেই এমনটি হয়েছে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা।

[৫] জাতিসংঘের মহাসচিব এটিকে ‘মানবতার জন্য লাল সংকেত’ হিসেবে উল্লেখ করেছেন। তিনি বলেছেন, আমরা যদি এখনই সব শক্তি একত্রিত করি, তাহলে জলবায়ু বিপর্যয় এড়ানো সম্ভব। প্রতিবেদন এটি পরিষ্কার করে দিয়েছে যে, দেরি করার মতো সময় নেই আর কোনো অজুহাতেরও জায়গা নেই। জাগোনিউজ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত