প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার গ্র্যান্ড ফাইনালে বাংলাদেশের কিশোয়ার

ওয়ালিউল্লাহ সিরাজ: [২] সোমবার ও মঙ্গলবার দুই দিনে দুটি পর্বের মধ্য দিয়ে শেষ হবে রান্নাবিষয়ক জনপ্রিয় রিয়েলিটি শো মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ার এবারের আসর। সেখানে কিশোয়ার, নারায়ণ ও ক্যাম্পবেলের মধ্যে চ্যাম্পিয়ন-রানারআপ নির্বাচিত হবে। ইন্ডিয়া টুডে

[৩] সেমিফাইনালে কিশোয়ার চৌধুরীর প্রতিপক্ষ ছিল জাস্টিন নারায়ণ এবং এলিস পুলব্রুক। সেই প্রতিযোগিতায় প্রতিভা ও দক্ষতার বলে দেশি খাবার হিসেবে নেহারি, মাছের ঝোল ও আইসক্রিম তৈরি করে কিশোয়ার তাদের পরাস্ত করেন। বিশ্বজুড়ে তিনি বাংলাদেশিদের ভালবাসা এবং সমর্থনও অর্জন করেছেন।

[৪] কিশোয়ারের বাবার শেখানো রেসিপি দিয়ে তৈরি করেন নেহারি। বিচারকেরা খেয়ে মেকি রাগ প্রকাশ করে বলেন, তোমার রান্না করা খাবার এত মজা কেন! তার তৈরি আইসক্রিমের স্বাদও হয় অতুলনীয়। তার পান আইসক্রিম খেয়ে বিচারক মেলিসা বলেন, এটা বাংলাদেশের জন্য কিশোয়ারের প্রেমপত্র।

[৫] মাস্টারশেফ অনুষ্ঠানে বাংলা ও ভারতীয় খাবারের জয়জয়কার করেছেন কিশোয়ার চৌধুরী। তার রেসিপি এখন বিশ্বনন্দিত। রিয়েলিটি শো মাস্টারশেফ অস্ট্রেলিয়ায় ফুচকা, খিচুড়ি, জাউ ভাত, চিংড়ি-লাউয়ের স্যুপ, সামুদ্রিক মাছের তরকারি, বেগুন ভর্তা, মাছ ভাজা, কুলফি মালাই তৈরি করেছেন তিনি।

[৬] কিশোয়ার চৌধুরী বলেন, আমি যখন বাংলাদেশি খাবার রান্না করি তখন আমার অনেক গর্ববোধ হয়। বাংলাদেশি খাবার নিয়ে একটি বই লেখারও আশা প্রকাশ করেছেন তিনি।

[৭] অস্ট্রেলিয়ার ভিক্টোরিয়া রাজ্যের মেলবোর্নের বাসিন্দা কিশোয়ার চৌধুরীর জন্ম ও বেড়ে ওঠা অস্ট্রেলিয়াতেই। কিশোয়ার পেশায় ‘বিজনেস ডেভেলপার’। দুই সন্তানের মা কিশোয়ার অস্ট্রেলিয়ায় পরিচিত মুখ বাংলাদেশি ব্যবসায়ী কামরুল হোসাইন চৌধুরী এবং লায়লা চৌধুরীর সন্তান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত