প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রবীর বিকাশ সরকার: বাংলাদেশের রাজনীতি নিয়ে কথা বলা কঠিন!

প্রবীর বিকাশ সরকার: আমার জাপানি রাজনীতি সচেতন বন্ধুরাও মাঝে মাঝে জিজ্ঞেস করেন, শেখ হাসিনার পর কে হবেন দলের প্রধান এবং তিনি প্রধানমন্ত্রী হতে পারবেন কিনা? আমি উত্তরে বলে থাকি এরকম বাংলাদেশের রাজনীতি নিয়ে কথা বলা কঠিন। কারণ রাজনীতির মূল যে লক্ষ্য সমাজে শান্তি ও সমতা প্রতিষ্ঠা করা বা প্রতিষ্ঠিত রাখা, তা বিগত ৫০ বছরেও সম্ভব হয়নি। বাংলাদেশের মতো প্রতিটি ক্ষেত্রে তীব্র বৈষম্যমূলক সমাজ ব্যবস্থা খুব কম দেশেই আছে। উপমহাদেশের তিনটি দেশ ভারত, পাকিস্তান এবং বাংলাদেশেই এই লক্ষণ সবচেয়ে বেশি। বিদেশিরা বাইরে থেকে যতোই চেষ্টা করুন জানার জন্য তা সহজ নয়, সেইদেশে অন্ততপক্ষে বছর খানেক বসবাস করলে সহজেই বুঝতে পারবেন। অনেক জাপানি বাংলাদেশ থেকে ঘুরে এসে এই বৈষম্যর কথা আমাকে বলেছেন।

যাইহোক, বাংলাদেশে আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয় পার্টি কোনোটির পক্ষেই কোনোদিন বৈষম্য দূর করে সমাজে শান্তি ও সমতা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হবে বলে, আমার কখনোই মনে হয়নি। এই দলগুলোর রাজনীতির সঙ্গে যারা জড়িত সকলের মনমানসিকতা অদ্ভুতভাবে একই রকম। বাঙালির চরিত্র যে ধাতুতে গড়া, যা মূলত উপমহাদেশীয় জলবায়ুদ্বারা সৃষ্ট, এই প্রভাব বা অচলায়তন থেকে বেরিয়ে আসার লক্ষণ নেই বললেই চলে। সুতরাং এভাবেই চলবে দেশ, চালাবেন যেই দলনেতা বা প্রধানমন্ত্রী হন। উন্নয়ন মানুষের জীবনযাত্রায় পরিবর্তন আনলেও জাতিগত চরিত্রে বদল আনা সম্ভবপর হয় না, যদি না কোনো ব্যাপক পরিবর্তন সাধন করা যায়।

উন্নত দেশগুলো একসময় দরিদ্র ছিল, পিছিয়ে ছিল, সাম্রাজ্যবাদীও ছিল, কিন্তু ব্যাপক পরিবর্তন সাধন বা রাতারাতি বিপ্লবের দ্বারা সমাজে জীবনযাপন বদলের যে নজির দেখিয়েছে, তার মধ্যে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ব্যবহার ছিল অপরিহার্য। বাঙালির যে চরিত্র তাতে প্রতারণা ও পরশ্রীকাতরতার প্রবণতা এতো প্রবল যে, নিজের রক্তের আত্মীয়কেও ছাড় দেয় না। এই বিরল স্বভাব অন্যান্য জাতির মধ্যে দেখা যায় না। জাপানে ৩৬ বছর ধরে অনেক দেশের মানুষের সঙ্গে কাজ করার সুযোগ হয়েছে, বন্ধুত্ব হয়েছে, মেলামেশা করছি, কিন্তু এরকম আত্মকেন্দ্রিক মানসিকতা দেখিনি।

জলবায়ুর অস্থিরতাও বাঙালির জাতীয় চরিত্রকে চরম খেয়ালি করে রেখেছে হাজার-হাজার বছর ধরে। উপনিবেশ ভারতের অন্যতম ব্রিটিশ শাসক লর্ড ম্যাকলে কী বলে গেছেন বাঙালি সম্পর্কে, তা হয়তো অনেকেই জানেন।

লেখক: কথাসাহিত্যিক ও রবীন্দ্রগবেষক

সর্বাধিক পঠিত