প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সিজিএস-এর প্রতিবেদন: করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু বেড়েছে

প্রথম আলো: দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণ বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এ রোগের উপসর্গ নিয়ে মৃত্যুও বেড়েছে। গত ২৪ মে থেকে ৮ জুন পর্যন্ত ১৬ দিনে করোনার উপসর্গ নিয়ে সারা দেশে মারা গেছেন ৫৮ জন। এর মধ্যে রাজশাহী বিভাগেই মারা গেছেন ৫২ জন। রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেই করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন ৫০ জন।

বাংলাদেশ পিস অবজারভেটরির (বিপিও) এক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উঠে এসেছে। দেশে করোনা পরিস্থিতি তুলে ধরে শনিবার বিপিওর প্রতিবেদনটি প্রকাশ করা হয়েছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর জেনোসাইড স্টাডিজ (সিজিএস) প্রতিবেদনটি প্রস্তুত করেছে। জাতিসংঘ উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) আর্থিক সহায়তায় করোনাকালে কয়েকটি বিষয় নিয়ে নিয়মিত প্রতিবেদন প্রকাশ করে আসছে বিপিও।

প্রতিবেদনে বলা হয়, ৮ জুনের আগের ১৬ দিনে করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃতদের অধিকাংশই চাঁপাইনবাবগঞ্জ, রাজশাহী ও নওগাঁর বাসিন্দা। এ ছাড়া খুলনা বিভাগে যে ছয়জন করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন, তাঁদের অধিকাংশের বাড়ি সাতক্ষীরা জেলায়।

করোনার উপসর্গ নিয়ে গত জানুয়ারি থেকে মে মাসের শুরু পর্যন্ত দেশে মৃত্যু কমেছিল। গত ১৩ মে থেকে ২৫ মে পর্যন্ত সময়ে সারা দেশে করোনার উপসর্গ নিয়ে কেউ মারা যাননি। তবে ২৬ মে থেকে আবার করোনার উপসর্গ নিয়ে মৃত্যু বেড়েছে।

এখন পর্যন্ত করোনার উপসর্গ নিয়ে দেশে সবচেয়ে বেশি মৃত্যু হয়েছে চট্টগ্রাম বিভাগে, ৭৪১ জন। আর সবচেয়ে কম মারা গেছেন ময়মনসিংহ বিভাগে, ৬৪ জন।

বিপিওএর প্রতিবেদনে বলা হয়, দেশে করোনার উপসর্গ নিয়ে গত বছরের ২২ মার্চ থেকে চলতি বছরের ৮ জুন পর্যন্ত সময়ে মারা গেছেন ২ হাজার ৩০২ জন। এর মধ্যে ঢাকা বিভাগে মারা গেছেন ৩৯৬ জন, খুলনা বিভাগে ৩৭১ জন, রাজশাহী বিভাগে ২৮৯ জন, বরিশালে ২৪৪ জন, সিলেটে ১০২ জন এবং রংপুর ৯৫ জন মারা গেছেন।
করোনা পরিস্থিতি নিয়ে গত বছরের ১ মার্চ থেকে ৮ জুন পর্যন্ত দেশের ২৫টি গণমাধ্যমের সংবাদ বিশ্লেষণ করে এবারের প্রতিবেদন প্রকাশ করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত