প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] এবার ড্রোন ব্যবহার করে বৃষ্টি নামাতে চায় আমিরাত

ওবায়দুল হক মানিক, আমিরাত: [২] সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাই মানে নতুনত্ব, দুবাই মানেই আধুনিকতা। ইতোমধ্যে দেশটি ২০১৪ সালে ঘোষণার দিয়ে তেল-নির্ভরতা ছেড়ে প্রযুক্তিকে গুরুত্ব দিচ্ছে। ২০১৪ সালে এর সূচনা হয়। মঙ্গল অভিযান, মহাকাশ যাত্রার মাধ্যমে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তির ক্ষেত্রে স্বনির্ভরতা আত্মপ্রকাশ পায়। ২০১৭ সালে কৃত্রিম বৃষ্টি তৈরির উদ্যোগটিও ছিল তারই অংশ।

[৩] তাঁদের লক্ষ্য হলো, ২১১৭ সালে মঙ্গলে বসতি স্থাপন করা। এখানেই শেষ না আমিরাতের ভূমিতে মঙ্গল গ্রহের ন্যয় একটি স্থাপনা তৈরি করেছে। এখানে আধুনিক রেস্টুরেন্টে রোবট ব্যবহার হয়। বিভিন্ন ছোট-বড় ইভেন্টে সিকিউরিটি হিসেবে রোবটের ব্যবহার বেশ বৃদ্ধি পেয়েছে। বিশ্বের সবচেয়ে বড় কৃত্রিম ফুলের পার্ক থেকে শুরু করে মহাকাশ যাত্রা সব কিছুই জ্ঞান-বিজ্ঞানের বিকাশ জানান দিচ্ছে।

[৪] আমিরাতে বছরে ১০০ মিলি মিটার পরিমাণ বৃষ্টি হয়। সার্বিক বিচারে দেশটিতে প্রয়োজনের তুলনায় এটি খুবই কম। তাই ২০১৭ সালে কৃত্রিম উপায়ে বৃষ্টি নামানোর পদ্ধতির উদ্ভাবনে নামে। এতে খরচ হয় ১৫ মিলিয়ন ডলার। এই উদ্ভাবনের অন্যতম একটি হচ্ছে বিশেষ ড্রোনের ব্যবহার। চারটি ড্রোন তৈরি করা হয়েছে। বিশেষভাবে তৈরি এসব ড্রোন উড়ে যাবে মেঘগুচ্ছের কাছে। এর পর সেখানে ড্রোন থেকে বৈদ্যুতিক শক বা তাপ দেয়া হবে। যাতে মেঘ গলে যায় আর তা থেকে ফোঁটায় ফোঁটায় পানি পড়ে বৃষ্টির সৃষ্টি হয়। এছাড়াও তারা ক্লাউড সিডিং প্রযুক্তিরও ব্যবহার করেছে। ড্রোন প্রকল্পের নেতৃত্ব দিচ্ছেন রিডিং ইউনিভার্সিটির বিজ্ঞানীরা। সম্পাদনা: হ্যাপি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত