প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত ও কর্মহীন শ্রমিকদের জন্য বাজেটে বিশেষ বরাদ্দের দাবি

শরীফ শাওন: [২] শ্রমিক নেতারা জানান, ক্ষতিগ্রস্ত মোট শ্রম শক্তির ৮৫ শতাংশ পর্যটন, হোটেল, রেস্টুরেন্ট, নির্মাণ, তাঁত, পাদুকা, কুলি, পরিবহন, হালকা যানবাহান চালকসহ অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের শ্রমিক এবং প্রবাসী শ্রমিকদের জন্য রাষ্ট্রীয় উদ্যোগে কর্মসংস্থান, খাদ্য, চিকিৎসা ও অর্থ সহায়তার জন্য বাজেটে সুনির্দিষ্ট বরাদ্দ দেওয়া প্রয়োজন।

[৩] শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্টের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে তারা বলেন, শ্রমজীবী মানুষের খাদ্য সামাজিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় বরাদ্দ দিয়ে আর্মি রেটে রেশন, শ্রমিক অঞ্চলে চিকিৎসাকেন্দ্র নির্মাণসহ বিনামূল্যে চিকিৎসা এবং সার্বজনীন পেনশন চালু করার দাবি জানাই।

[৪] সংগঠনটির সভাপতি রাজেকুজ্জামান রতনসহ উপস্থিত শ্রমিক নেতারা বলেন, করোনা সংক্রমণে সাধারণ জীবনযাত্রা যখন স্থবির হয়ে পড়েছে, তখনও জীবনের ঝুঁকি নিয়ে শ্রমিকরা উৎপাদনের চাকা সচল রেখেছে। এতে দুর্যোগকালীণ মাথাপিছু আয় ও জিডিপি বেড়েছে। দেশের সম্পদ ও মাথাপিছু আয় বাড়ালেও শ্রমিকদের আয় কমেছে কমপক্ষে ২০ শতাংশ।

[৫] সামাবেশে তারা জানান, বিভিন্ন গবেষণা প্রতিষ্ঠান বলছে, আয় কমে যাওয়ায় প্রায় ৫২ শতাংশ পরিবার প্রতিদিনের খাদ্য ব্যয়ের পরিমাণ কমিয়েছে। বিশ্ব ব্যাংক বলছে, করোনায় বাংলাদেশে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর সংখ্যা ১২ শতাংশ থেকে বেড়ে ২২ শতাংশ হয়েছে। অর্থাৎ করোনাকালে দেশের সম্পদ বাড়ার পাশাপাশি বৈষম্যের মাত্রা বেড়েছে। কয়েক হাজার মানুষ কোটিপতি হওয়ার বিপরীতে কোটি কোটি মানুষ দরিদ্র থেকে অতিদরিদ্রে পরিণত হচ্ছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত