প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কেন এত ঘন ঘন ঝড়?

নিউজ ডেস্ক: আগের চেয়ে ঘূর্ণিঝড়ের সংখ্যা বাড়ছে। বাড়ছে ঝড়ের গতিও। একটার পর একটা বড় আকারের ঝড় যেন লেগেই আছে। বিশ্বের উষ্ণতা বৃদ্ধি ও জলবায়ু পরিবর্তনের কারণেই এমনটা ঘটছে বলে জানালেন বিশেষজ্ঞরা।

ঘূর্ণিঝড় ফণীর জন্ম ২০১৯ সালের ২৬ এপ্রিল, পরের বছর আম্পানের জন্ম ২০ মে, এবার ইয়াস এলো ২৫ মে। এভাবে প্রতিবছর এই সময়গুলোতে ঝড় হচ্ছেই।

আবহাওয়াবিদ আব্দুল মান্নান বলেন, এই সময়ের আবহাওয়ার কারণেই ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টি হয়। এ সময় সূর্য থাকে মাথার উপর। তাপপ্রবাহও বেশি থাকে। তাপের কারণে আকাশে মেঘও বেশি হয়। এতে বজ্রবৃষ্টি বেশি হয়। ঝড়ের সব উপাদান তৈরি হয় এ সময়।

ব্র্যাকের হিউম্যানিটেরিয়ান প্রোগ্রামের পরিচালক সাজেদুল হাসান বলেন, ‘গত ৫০ বছরের ঝড়ের তথ্য নিলে দেখা যায়, ঝড়ে বাতাসের গড় গতিবেগ অনেক বেড়েছে। বিশেষ করে গত দুই-তিন বছরে এমনটা হয়েছে। এর কারণ জলবায়ুর পরিবর্তন। গত বছর যে আম্পান মোকাবিলা করলাম তার গতি ছিল ২২০ কিলোমিটার। যদিও উপকূলে আসার আগে গতি কিছুটা কমে গিয়েছিল। এবারের ঝড়ের চেয়ে অনেক বেশি শক্তিশালী ছিল সিডর, নার্গিস। সেই তুলনায় ইয়াস-এর গতি অবশ্য কম। ১৫০ কিলোমিটার বেগে তা উপকূলে আছড়ে পড়ে।’

বিশেষজ্ঞরা বলেন, বিশ্বের উষ্ণতা বৃদ্ধি এবং এল নিনোর নিরপেক্ষতা- তথা মহাসাগরের গরম পানির স্রোতের গতি কম থাকায় সাগরের পরিবেশ অতিরিক্ত উত্তপ্ত হয়ে উঠছে। ভারত মহাসাগর স্বাভাবিকের তুলনায় এক-দুই ডিগ্রি বেশি উষ্ণ এখন। এ কারণেই ঝড়গুলো দ্রুত তৈরি হচ্ছে। বাংলাট্রিবিউন

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত