প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ৪৯ দিন পর সচল হলো সারাদেশের যোগাযোগ ব্যবস্থা

আখিরুজ্জামান সোহান: [২] করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ নিয়ন্ত্রণে দেড় মাসেরও বেশি সময় দূরপাল্লার গণপরিবহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়। সরকার আজ সোমবার থেকে দূরপাল্লার বাস ট্রেন ও লঞ্চ চালুর অনুমতি দিয়েছে। তবে এক্ষেত্রে স্বাস্থ্যবিধিসহ সরকারের বেঁধে দেওয়া শর্ত মানতে হবে পরিবহন শ্রমিক ও মালিকদের।

[৩] রোববার মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের উপসচিব রেজাউল ইসলামের সই করা এক প্রজ্ঞাপনে জানানো হয়, বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে চলমান বিধিনিষেধ আগামী ৩০ মে পর্যন্ত আরেক দফা বাড়ানো হয়েছে। তবে এই বিধিনিষেধের মধ্যে আন্তঃজেলাসহ সব ধরনের গণপরিবহন অর্ধেক আসন খালি রাখার শর্তে চলাচলের অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

[৪] প্রজ্ঞাপনে আরও বলা হয়, আন্তঃজেলাসহ সব ধরনের গণপরিবহন আসন সংখ্যার অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করতে পারবে। তবে অবশ্যই যাত্রীসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে মাস্ক পরিধান এবং সবধরনের স্বাস্থ্যবিধি মানতে হবে।

[৫] বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি সব জেলার বাস মালিকদের সরকারি নির্দেশনা মেনে গণপরিবহন চালানোর আহ্বান জানিয়েছেন।

[৬] সমিতি তাদের চিঠিতে জানায়, সরকার নির্ধারিত শর্তে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে বাস চালাতে হবে। মাস্ক ছাড়া কোনো যাত্রী ওঠানো যাবে না। চালক, কন্ডাক্টর, হেলপার, টিকিট বিক্রিতে নিয়োজিত ব্যক্তিকে মাস্ক পরতে হবে। টিকিট কাউন্টারে সামাজিক দূরত্ব মানতে হবে।

[৭] গত মার্চে করোনা সংক্রমণের হার বেড়ে যাওয়ার পর গণপরিবহনে অর্ধেক আসন খালি রাখার নির্দেশ দেয় সরকার। এ কারণে গত ৩০ মার্চ বাসের ভাড়া ৬০ শতাংশ বাড়ায় বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআরটিএ)। এ ভাড়া কার্যকরের পরপরই দূরপাল্লার বাস বন্ধ করে দেয় সরকার। দেড় মাসের বিধিনিষেধে কয়েক দফায় চালু হওয়া নগর পরিবহনে ৬০ শতাংশ বর্ধিত ভাড়া নেওয়া হচ্ছে। সে অনুযায়ী দূরপাল্লার গণপরিবহনও ৬০ শতাংশ হারে ভাড়া বেশি নেবে।

[৮] করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকারের বিধিনিষেধ শিথিল করায় অসেজন্য রেলওয়ে স্টেশন ও ট্রেনের বগিগুলো পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হয়েছে। দীর্ঘ ৪৯ দিন ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকার পর ইঞ্জিনগুলো ঠিক রয়েছে কিনা তাও পরীক্ষা করা হয়েছে। আজ থেকে দেশজুড়ে ২৮ জোড়া আন্তঃনগর ট্রেন এবং নয় জোড়া মেইল ও কমিউটার ট্রেন চলাচল করবে। প্রতিটি ট্রেনে স্বাস্থ্যবিধি মেনে অর্ধেক যাত্রী নিয়ে চলাচল করবে। সম্পাদনা: সালেহ্ বিপ্লব

 

 ছবিটি সকাল ৬টা ২০ মিনিটে রাজশাহী থেকে ছেড়ে আসা চিলাহাটিগামী তিতুমীর এক্সপ্রেসের। ছবি তুলেছেন রেলওয়ে ফ্যান গ্রুপের শরীফুল ইসলাম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত