প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ভারত ফেরতরা ১৪ দি‌নের কোয়া‌রেন্টাইন শে‌ষে বা‌ড়ি ফির‌তে পার‌ছেন না

র‌হিদুল খান:[২] প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকা ভারতফেরত যাত্রীদের করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। ফলে ১৪ দিন পর নয় ১৫তম দিনে নেওয়া নমুনা পরীক্ষার ফলাফল আসার পর বাড়ি ফিরতে হবে তাদের। এ নিয়ে ক্ষোভ বিরাজ করছে কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের মধ্যে। অবশ্য প্রশাসন বলছে, তারা সরকারি নির্দেশনা মানার জন্য সকলকে বোঝানোর চেষ্টা করছেন।

[৩] ভারতে করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব বেড়ে যাওয়ায় সরকার গত ২৬ এপ্রিল থেকে ভারতের সাথে দেশের সকল সীমান্ত বন্ধ করে দেয়। তবে ওইদিন থেকে ভারতে বাংলাদেশ মিশনের বিশেষ অনুমতি নিয়ে দেশে ফেরার সুযোগও দেওয়া হয়। ওইদিন থেকে যারা দেশে ফিরেছেন এবং যাদের করোনা নেগেটিভ সনদ আছে তাদের নিজ খরচে বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকতে হচ্ছে।

[৪] আর যারা করোনা পজেটিভ তাদের হাসপাতালে ভর্তি রাখা হচ্ছে।এভাবে গত ২৬ এপ্রিল থেকে গতকাল শুক্রবার (১৪ মে) পর্যন্ত বেনাপোল ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট হয়ে দেশে ফিরেছেন দুই হাজার ৮০২ জন বাংলাদেশি; যাদের যশোরসহ পাশের পাঁচ জেলায় প্রাতিষ্ঠনিক কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়।

[৫] এর মধ্যে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষ করে ফিরে গেছেন এক হাজার ১৭০ জন এবং বর্তমানে কোয়ারেন্টিনে আছেন এক হাজার ৬৩২ জন।গতকাল পর্যন্ত ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিন শেষে কোনো পরীক্ষা ছাড়াই ফিরে যেতে পারলেও এখন আর সেটা সম্ভব হবে না।

[৬] কারণ সরকারি নির্দেশনা মতে কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের শরীর থেকে ১৫তম দিনে নমুনা নেওয়া হবে এবং নেগেটিভ রিপোর্ট আসাসাপেক্ষে তাদের ছাড়া হবে। আজ এ সংক্রান্ত নির্দেশনা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন সেন্টারগুলোতে টাঙিয়ে দেওয়া হয়েছে।যশোর ওরিয়ন হোটেলের ফ্রন্ট ডেস্ক ম্যানেজার মেহেদি হাসান জানান, তাদের হোটেলে ১৩ জন কোয়ারেন্টিনে আছেন।

[৭] এদের মধ্যে পাঁচ নারী ও আটজন পুরুষ। আজ দুপুরের দিকে প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি নোটিস দিয়ে যায়। সেটি হোটেলের লবিতে সেঁটে দেওয়া হয়েছে। নোটিসটি কোয়ারেন্টিনে থাকা নারী ও পুরুষরা দেখেছেন। এরপর থেকে তারা ক্ষোভে ফুঁসছেন।কোয়ারেন্টিনে থাকা কয়েকজনের ভাষ্য, নেগেটিভ সনদ থাকা সত্ত্বেও তাদের সাথে হয়রানিমূলক আচরণ করা হচ্ছে।

[৮] এটা কাম্য নয়। ভারত থেকে ফেরার পর হাত শূন্য। এ অবস্থায় নিজ খরচে ‘বন্দি অবস্থায়’ থেকে মানসিক অবসাদে ভুগছেন তারা।এ বিষয়ে জানতে চাইলে যশোরের সিভিল সার্জন ডা. শেখ আবু শাহীন বলেন, ঈদের ছুটি ঘোষণার পর স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে নতুন নির্দেশনা আসে। নির্দেশনা মোতাবেক কোয়ারেন্টিন শেষে সবার করোনা পরীক্ষা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

[৯] ফলে কোয়ারেন্টিনের ১৫তম দিনে নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষায় পাঠানো হবে। ফলাফল আসার পর নেগেটিভ হলে ছেড়ে দেওয়া হবে।তিনি আরো বলেন, পিসিআর টেস্ট রিপোর্ট যাতে দ্রুত পাওয়া যায় সেজন্য সংশ্লিষ্টদের সাথে কথা বলা হয়েছে। সকলকে এ নির্দেশনা মানতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

[১০] এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক তমিজুল ইসলাম খান বলেন, ‘স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্দেশনা পাওয়ার পর গত শুক্রবার (১৪ মে) রাতে জরুরি বৈঠক করা হয়। বৈঠকের সিদ্ধান্ত মতে আজ শনিবার নতুন নির্দেশনা কোয়ারেন্টিন সেন্টারগুলোতে টানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

[১১] এর ফলে অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন, এমনকি গালিগালাজও করছেন। কারণ তাদের অনেকে পূর্বের সিদ্ধান্তের আলোকে বাড়ি ফেরার টিকিটও কিনেছেন। আমরা তাদের ম্যানেজ করার চেষ্টা করছি। তাদের ধৈর্য্য ধরতে অনুরোধ করছি। কারণ সরকারি নির্দেশনা মানতেই হবে।সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

সর্বাধিক পঠিত