প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনায় সিএমপির সাত শহীদ পুলিশ সদস্যের স্মরণে “ফ্রী ঈদ মার্কেট”

রাজু চৌধুরী : [২] পবিত্র ঈদে নিম্ন আয়ের মানুষের জন্য ব্যতিক্রমী এক মার্কেট চালু করেছে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ। এই কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় চট্টগ্রামের ডবলমুরিং থানা পুলিশ এবং লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগং সিটি যৌথ উদ্যোগে ‘ফ্রী ঈদ মার্কেট’ নামে এই আয়োজন করা হয়।

[৩] বুধবার সকাল সাড়ে ১১ টায় চট্টগ্রাম মা ও শিশু হাসপাতাল সংলগ্ন সড়কে অস্থায়ীভাবে স্থাপিত এই মার্কেট আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের উপ কমিশনার (পশ্চিম) মোঃ আব্দুল ওয়ারীশ।

[৪] এসময় অন্যান্যেদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত উপ কমিশনার পলাশ কান্তি নাথ, সহকারি কমিশনার শ্রীমা চাকমা, ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন,লায়ন শামচুউদ্দিন সিদ্দীকি ২য় ভাইস জেলা গভর্নর, লায়ন্স ক্লাব অব চিটাগাং সিটির সভাপতি লায়ন রাজেশ চৌধুরী, লায়ন গাজী মোঃ শহীদুল্লাহ্ (জোন চেয়ারম্যানসন),লায়ন কামরুল ইসলাম পারভেজ, প্রমুখ।

[৫] প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোঃ আব্দুল ওয়ারীশ বলেন, ‘ আমরা ঈদের আনন্দ বিলাতে চাই, ভাগাভাগি করে নিতে চাই সবার সাথে। আর্থিক অসঙ্গতি যাতে এই আনন্দে ভাটা না ফেলে তাই আমাদের এই উদ্যোগ। সমাজের সবাই যার যার অবস্থান থেকে এগিয়ে এলেই ঈদের আসল তাৎপর্য অর্থবহ হবে বলেন তিনি।

[৬] ডবলমুরিং থানার ওসি মোহাম্মদ মহসীন জানান, এই মার্কেটে বাজার করতে কোন টাকা লাগেনা। তাই ব্যতিক্রমী এই মার্কেটের নাম দেওয়া হয়েছে ‘ফ্রি ঈদ মার্কেট’।
ফ্রি ঈদ বাজারে মোট ৭ টি কর্নার খোলা হয়েছে। করোনায় চট্টগ্রামে শহীদ হওয়া ৭ পুলিশ সদস্যের স্মৃতি স্মরণ করে কর্নারগুলোর নাম তাঁদের নামে নামকরণ করা হয়েছে।

[৭] প্রতিটি কর্নারেই পৃথক পৃথকভাবে শাড়ি, পাঞ্জাবি, লুঙ্গি, বাচ্চাদের পোশাক, টি শার্ট, টুপি, সেমাই, নুডুলস প্রভৃতি সাজানো হয়েছে। ক্রেতারা নিজেদের ইচ্ছেমতো বাছাই করে ক্রয় করে নিয়ে যাচ্ছেন সম্পূর্ণ ফ্রি তে। করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্য বিধি জনসাধারন মেনে চলতে এবং সচেতনতা বৃদ্ধিতে সিএমপি কমিশনার স্যারের নির্দেশে পুলিশ যেমন সচেষ্ট তেমনি দুস্থ অসহায় মানুষদের পাশে সবসময়ই দাঁড়িয়েছে এ ধরনের কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে বললেন ওসি মোহাম্মদ মহসীন। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত