প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঈদগাহের চেয়ে মসজিদেই করোনা সংক্রমণে ঝুঁকি বেশি

শওগত আলী সাগর: বাংলাদেশে ঈদের জামাত ঈদগাহ বা খোলা জায়গার পরিবর্তে মসজিদে আদায়ের অনুরোধ করেছে ধর্মমন্ত্রণালয়। সরকারের এই আদেশটি দেশের স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের পরামর্শক্রমে হয়েছে কিনা তা অবশ্য আদেশে উল্লেখ করা হয়নি। আমার মনে হয় স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের সাথে পরামর্শ করলে তারা খোলা জায়গায় নামাজ আদায়কেই প্রাধান্য দিতেন। ফেসবুক থেকে

গত এক বছরের তথ্যউপাত্ত পর্যালোচনায় বিশেষজ্ঞরা বদ্ধ ঘরকে করোনা সংক্রমণের জন্য সবচেয়ে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হিসেবে বিবেচনা করছেন। তারা বরং খোলা মাঠ বা খোলা জায়গাকে কম ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে বিবেচনা করছেন।

পশ্চিমে বিশেষ করে আমেরিকায় খোলা জায়গায় মাস্ক ছাড়া চলাচলের নির্দেশনা দেয়ার প্রস্তুতি চলছে বলেও চিকিৎসক বন্ধুরা জানাচ্ছেন। আমেরিকার সিডিসি শিগগিরই এই সংক্রান্ত নির্দেশনা প্রকাশ করবে বলে আমেরিকার চিকিৎসকরা ঈঙ্গিত দিচ্ছেন। খোলা জায়গায় করোনার সংক্রমণ কম হয়- এমন একটি বৈজ্ঞানিক তথ্যের ভিত্তিতেই আমেরিকা এই ভাবনা ভাবছে।

মসজিদের ভেতর নামাজ আদায় হলে মানুষ আবদ্ধ ঘরে অনেকটা সময়ের জন্য অবস্থান করবেন। এই সময়ে উপসর্গহীন সংক্রমিত কোনো নামাজী থাকলে তার শরীর থেকে ভাইরাস আবদ্ধ ঘরে অন্যদের সহজেই সংক্রমিত করতে পারে।

আমার মনে হয় ধর্মমন্ত্রণালয় স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের সাথে পরামর্শ করে দেখতে পারে। তবে এ পর্যন্ত প্রাপ্ত তথ্য বলে, মসজিদের ভেতরের চেয়ে খোলা জায়গায় ঈদের নামাজ আদায় অধিকতর নিরাপদ এবং তাতে করোনা ছড়ানোর কম ঝুঁকি থাকে।

লেখক: কানাডা প্রবাসী বাংলাদেশি

সর্বাধিক পঠিত