প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] খান ফ্যামিলি ফাউন্ডেশন’র ফ্রি স্যালাইন ব্যবস্থায় মেহেন্দিগঞ্জ হাসপাতালে ডাররিয়া রোগীদের স্বস্তি

মনিরুল ইসলাম: [২] মেহেন্দিগঞ্জে সংকটময় মুহুর্তে শত শত গরীব অসহায় ও দুস্থ ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীদের ফ্রী কলেরা স্যালাইন’র ব্যবস্থা করে মানব সেবার চরম দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন খান ফ্যামিলি ফাউন্ডেশন।

[৩] গত কয়েকদিন ধরে মেহেন্দিগঞ্জে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় কলেরা স্যালাইন সংকটে পড়ে হাসপাতাল। এর ফলে চরম দুর্ভোগে পড়ে রোগীরা। অতিরিক্ত টাকা দিয়েও স্যালাইন মিলছে না রোগীদের।

[৪] এ সংকট দূর করতে খান ফ্যামিলি ফাউন্ডেশনের পৃষ্ঠপোষক মেহেন্দিগঞ্জের কৃতি সন্তান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ’র সাবেক সাধারণ সম্পাদক প্রাবাসী মোঃ হেমায়েত উদ্দীন খান হিমু ও তার ছোট ভাই মো মাহাতাব উদ্দীন খান লিটুর ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় স্বল্প সময়ের মধ্যে ব্যক্তিগত তহবিল থেকে কলেরার স্যালাইন’র ব্যবস্থা করে ডায়রিয়া আক্রান্ত রোগীদের মাঝে স্বস্তি ফিরিয়ে এনেছেন।

[৫] মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত অসহায় দুস্থ রোগীরা বিনামূল্যে স্যালাইন পেতে এখন ভীড় করছে হাসপাতাল রোড হাসান জেনারেল স্টোরে।

[৬] মানব কল্যাণে প্রতিষ্ঠিত খান ফ্যামিলি ফাউন্ডেশন’র উদ্যােগে প্রাথমিকভাবে ৫’শ কলেরা স্যালাইন দেওয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে আরো স্যালাইন দেওয়া হবে বলে জানান লন্ডন প্রবাসী হীমু ও প্রতিষ্ঠানের দায়িত্বশীলরা।

[৭] খান ফ্যামিলি ফাউন্ডেশন’ এর প্রতিটি উদ্যোগ মেহেন্দিগঞ্জ চানপুর ইউনিয়ন ও বর্তমান পৌরসভার অম্বিকাপুর ওয়ার্ডের প্রাক্তন শিক্ষক মরহুম এ কে এম আব্দুল্লাহ খান ও তার পরিবারের সকল পরলোকগত সদস্যদের বিদেহী আত্মার শান্তির জন্য নিবেদিত।

[৮] মেহেন্দিগঞ্জে গত এক সপ্তাহে রেকর্ড সংখ্যক রোগী ভর্তি হয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে। নারী শিশুসহ প্রতিদিন গড়ে ৪০ থেকে ৫০ জন নতুন রোগী ভর্তি হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে।

[৯] চিকিৎসকের ভাষ্যমতে, হাসপাতালে এখন ডায়রিয়া রোগী বেশি। এখানে স্যালাইন ও জায়গা সংকট ।

[১০] উল্লেখ, আত্নমানবতায় প্রতিষ্ঠিত খান ফ্যামিলি ফাউন্ডেশন ধারাবাহিকভাবে মানব কল্যানে বহুমুখী সেবামূলক কাজ করে দৃষ্টান্ত দেখিয়েছেন। কেউ কেউ বলছেন সংগঠনটির মানবতা অন্যদের জন্য হতে পারে অনুসরণ ও অনুকরণ। তাদের সেবা পেয়ে মন থেকে দোয়া করছেন সুবিধাভোগীরা। সম্পাদনা: হ্যাপি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত