প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দৌলতদিয়ায় ভিজিডি বঞ্চিত ৭৪৯ উপকারভোগী

কামাল হোসেন: [২] রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রহমান মন্ডল দূবৃত্তদের সশস্ত্র হামলায় মারাত্মক জখম হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছে। প্যানেল চেয়ারম্যান আব্দুল গনি মন্ডল দূবৃত্তদের গুলিতে মারা গেছে। এমতাবস্থায় অভিভাবকহীন দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ৭৪৯ জন দুঃস্থ্য ভিজিডি ভোগীরা গত ৩ মাসের চাল থেকে বঞ্চিত রয়েছে।

[৩] অপরদিকে দ্বিতীয় ধাপে প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সারাদেশ ব্যাপি চলছে কঠোর লকডাউন।

[৪] রোজা, চলমান লকডাউন ও করোনা সংকটময় পরিস্থিতিতে সবচেয়ে বেশী বিপাকে পড়েছে নিম্নআয়ের শ্রমজীবী মানুষেরা। এ অবস্থায় দৌলতদিয়া ইউনিয়নের ৭৪৯ জন দুঃস্থ্য ভিজিডি ভোগী পরিবারগুলো মানবেতর জীবন-যাপন করছে।

[৫] ইউনিয়ন পরিষদ সূত্রে জানা যায়, উপজেলার সবগুলো ইউনিয়নের অনুকূলে সরকারীভাবে ভিজিডি’র উপকার ভোগীদের জন্য (জানুয়ারি, ফেব্রুয়ারী ও মার্চ) ৩ মাসের চালের বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এ ক্ষেত্রে দৌলতদিয়া ইউনিয়নে মোট ৭৪৯ জন কার্ডধারীর জন্য প্রতি মাসে ৩০ কেজি করে চালের বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্তু নিয়ম অনুযায়ী বরাদ্দকৃত চাল চেয়ারম্যান অথবা প্যানেল চেয়ারম্যানের নামে বরাদ্দ দেয়া হয়। কিন্তু তাদের দুজনের অনুপস্থিতিতে এখানকার চাল খাদ্য গুদাম হতে উত্তোলন করা যাচ্ছে না।

[৬] ইউনিয়নের ২য় প্যানেল চেয়ারম্যান ও ৯ নং ওয়ার্ডের সদস্য মো. জামাল মোল্লা বলেন, এই দুঃসময়ে মানুষজন খুব কষ্টে আছে। ভিজিডি’র চালগুলো দ্রুত দিতে পারলে ওই পরিবারগুলো একটু শান্তি পেত। আমরা বুধবার পরিষদের সকল সদস্য মিলে এ বিষয়টি নিয়ে ইউএনও’র সাথে কথা বলবো।

[৭] গোয়ালন্দ উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন বলেন, দৌলতদিয়া ইউনিয়নে ৭৪৯ জন উপকারভোগীর নামে ৩ মাসের মোট ২২ টন ৪৭০ কেজি চালের বরাদ্দ হয়েছে। আমি চালগুলো নেয়ার বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের সাথে যোগাযোগ করছি।

[৮] গোয়ালন্দ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম বলেন, দৌলতদিয়ায় দ্রুত সময়ের মধ্যে কিভাবে চাল দেয়া যায় সেটা আমি খতিয়ে দেখব। সম্পাদনা: সাদেক আলী

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত