প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] কুমিল্লার তিতাসে বোরো ধান কাটা-মাড়াই শুরু, ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষক

তাসীন তিহামী : [২] কুমিল্লার তিতাসে বোরো ধান কাটা-মাড়াই শুরু হয়েছে। ভোর থেকে রাত অব্দি সোনালী ধান ঘরে তোলার তাগাদায় ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষক-কৃষাণীসহ পরিবারের ছোট-বড় সকলে। চলতি মৌসুমে এখন পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকায় কৃষকের চোখেমুখে হাসির ঝিলিক দেখা গেলেও বৈরী আবহাওয়ার আশঙ্কায় সংশয় কাজ করছে।

[৩] উপজেলা কৃষি অফিস সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ২৭টি ব্লকে চলতি বোরো মৌসুমে আগাম নতুন জাত হিসেবে বি-ধান-৮১ ও বি-ধান-৮৮ এবং পুরাতন জাত হিসেবে বি-ধান-২৮ ব্যাপক হারে চাষ করা হয়েছে। উপজেলায় এবার ৬ হাজার ৭শ ৬০ হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষাবাদের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হলেও চাষাবাদ হয়েছে ৬ হাজার ৭শ ১০ হেক্টর জমিতে। লক্ষ্যমাতার চেয়ে ৫০ হেক্টর জমিতে আবাদ কম হয়েছে।

[৪] উপজেলার বিভিন্ন এলাকার কৃষকদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, এবার চারা থেকে শুরু করে পানি সরবরাহ, রক্ষণাবেক্ষণে শ্রমিক সংকট, কীটনাশক ও সারের কোনো সংকট ছিল না। এছাড়া আবহাওয়া এখন পর্যন্ত অনুকূলে আছে। আগামী কয়েকদিন এ অবস্থায় থাকলে কৃষক ভালো ভাবে সোনালী ফসল ধান ঘরে তুলতে পারবে।

[৫] স্থানীয় কাপাশকান্দি গ্রামের কৃষাণী মিনরা খাতুন বলেন, ধান ঘরে তুলতে গিয়ে সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে পানির সংকট। ধান ভিজানো ও সিদ্ধ করার কাজে প্রচুর পানি লাগে। আশে-পাশের জলাশয় ও ডোবা-নালা ভরাট হয়ে যাওয়ায় এ সংকট আরো প্রকট হয়েছে।

[৬] উপজেলা কৃষি অফিসার মো. সালাহউদ্দিন জানান, স্থানীয় জাতের ও উচ্চ ফলনশীল জাতের ধান কাটা ও মাড়াই শুরু হয়েছে। বোরো ফসল উৎপাদন বাড়াতে আমরা আপ্রাণ চেষ্টা করছি। ফসল ঘরে তোলা পর্যন্ত আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এবার কৃষক বেশ লাভবান হবেন।সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

 

 

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত