প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এক ব্যক্তি কোদাল নিয়ে আমাকে মারতে আসে : ইউএনও

আতাউর অপু: লকডাউনে দোকান খোলা রাখায় এবং মাস্ক না পরায় ফেরদৌস আলম নামের এক স্বর্ণ ব্যবসায়ীকে দেড় হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। শনিবার দুপুরে এ জরিমানা করেন সোনাতলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাদিয়া আফরিন।

ওই ঘটনার কিছুক্ষণের মধ্যেই স্থানীয় ব্যবসায়ীরা ইউএনও’র গাড়ির সামনে অবস্থান নিয়ে জরিমানা প্রত্যাহারের দাবি জানান। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয় এবং ইউএনও ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

এ বিষয়ে সোনাতলার ইউএনও সাদিয়া আফরিন বলেন, ‘করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী শনিবার দুপুরে অভিযান পরিচালনা করি। অভিযান চলাকালে স্থানীয় গাজী প্লাজার সামনে “রোজবা” নামক জুয়েলার্সটি খোলা পাই। এগিয়ে গেলে জুয়েলার্সটির মালিককে মাস্কবিহীন অবস্থায় দেখতে পাই। বিধি অনুযায়ী তাকে দেড় হাজার টাকা জরিমানা করি।’

ইউএনও আরও বলেন, ‘ওই সময় আশপাশের কিছু দোকানদার আমার গাড়ির সামনে এসে জরিমানা প্রত্যাহারের আহ্বান জানান। এ সময় এক ব্যক্তি কোদাল নিয়ে আমাকে ও আমার ড্রাইভারকে মারতে উদ্যত হয়। পরে পুলিশ আসলে জটলামুক্ত হয় ও আমি ঘটনাস্থল ত্যাগ করি।’

সোনাতলা থানা ওসি রেজাউল করিম রেজা জানান, এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত