প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

করোনার প্রভাব: চীনা তরুণরা মৃত্যুর শঙ্কায় নিজেদের শেষ ইচ্ছা রেজিস্ট্রেশন করে রাখছেন

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্ট: পত্রিকাটির একটি রিপোর্ট বলছে, করোনার ঝড়ে জীবন নিয়ে নতুন করে ভাবছেন চীনা তরুণরা। উইলে তারা তাদের সংস্কৃতি ও সম্পর্ক নিয়ে লিখে রাখছেন।

চায়না উইল রেজিস্ট্রেশন সেন্টারের হিসেব মতে আগের চেয়ে বহুগুন বেড়ছে ইচ্ছা প্রকাশের হার। তারা বলছেন এটি একটি নতুন সূচনা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০১৯ এর তুলনায় ২০২০ এ সংখ্যা অনেক বেড়েছে। তরুণরা তাদের মৃত্যু এবং সম্পত্তি নিয়ে বিস্তারিতই লিখছেন। যার ইচ্ছার কথা লিছে রাখছেন এদের বেশিরভাগই জন্ম নিয়েছেন ১৯৯০ সালের পর।

সংবাদ সংস্থা সিনহুয়া তাদের এক রিপোর্টে দাবি করেছে জিয়াং( ছদ্মনাম) নামে এক ছাত্রী তার ২০, ০০০ ইয়ন সম্পদের হিসেব ও উত্তরাধিকার কে হবে তা উইল করেছে। তারা বলছে, এই ছাত্রী মনে করেন , জীবনকে এখন তিনি আরো বেশি উপভোগ করছেন আগের চেয়ে। এই ইচ্ছা লিখার মধ্য দিয়েই জীবন শেষ নয়। উইলে তিনি লিখেছেন, তার সম্পত্তি পাবে তার দুঃসময়ের বন্ধু যে বিপদে তাকে সাহয্য করেছে।

রাষ্ট্রীয় হিসেবে , চীনের ৮০ শতাংশ তরুনই এখন উইল করছেন। রিসার্চ সেন্টারের দাবি এই উইল লিখার আগে সংস্থাটিকে দুই থেকে তিনবার উইলকারীর সম্পদ ও স্বাস্থ্যের খোজ নিতে হয়। যে আসলেই তার কি সম্পদ ও শারিরীক অবস্থা রয়েছে।

জিয়াউ নামে আরে শিক্ষার্থী সিসিটিভি নামে এক সংস্থায় বলছে, করেনার পর পারিবারিক ও বন্ধুতের সম্পর্কের ব্যাপারে তারা সচেতন হয়েছেন। সম্পদ বন্টও ও ইচ্ছার কথা লিখে রাখা তারই অংশ।

সর্বাধিক পঠিত