প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাপ্তাহিক বাজার, হাটে উপচে পড়া ভীড় নেই শারীরিক দুরত্ব

মো.ইউসুফ মিয়া : [২] মানুষের পদচারনে মুখর হয়ে পড়েছে হাট-বাজার রিক্সা, ইজিবাইক, মানুষ আর মোটরসাইকেলে ভরপুর। এ দোকানে সে দোকানে ঘোরাঘুরি করছে সবাই।

[৩] করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে পা দেওয়ায় সারা দেশে লকডাউন চলছে। বৃহস্পতিবার ভোরে শুরু হওয়া সাপ্তাহিক বাজার হাটে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে না। গা ঘেষে গাদাগা‌দি ঠেলাঠেলি করে চলছে দ্রব‍্যাদী কেনাকাটা।

[৪] রাজবাড়ী ও বালিয়াকান্দি বাজারে এ চিত্র দেখা গেছে। একইভাবে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে সকাল বেলার বাজারে মানুষের ভীড় লক্ষ করা গেছে।

[৫] ব‍্যবসায়ীরা বলছে,তারা নিত‍্যপ্রয়োজণীয় পণ্যের জন‍্য এ ভোরের বাজার চালু রয়েছে। বেলা বাড়ার সাথে সাথে বাজারে মানুষের সংখ‍্যা কমে যায়। শক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করলেও অনেকেই মানছে না।

[৬] আর অনেকেই বলছেন, ক্রয় বিক্রয় অল্প সময় পাওয়ায় ভীর ঠেকানো যাচ্ছে না। অনেকেই বাজারটিকে ঈদের বাজারের সাথে তুলনা করেছেন। সাধারণ মানুষের ভীরে পথচলাই কষ্টকর ছিল বলে জানিয়েছেন একাধিক ক্রেতগণ।

[৭] সরেজমিন বালিয়াকান্দি বাজারে দেখা যায়, গোটা বাজারে মানুষ আর মানুষ। গায়ে গায়ে ঠেলাঠেলি করে চলছেন তারা। মানুষ যে যার মতো কেনা কাটায় ব‍্যস্ত।

[৮] একজন ব‍্যবসায়ী বলছেন, সম্প্রতি বাজার বন্ধ ঘোষনা দেওয়ায় যতটুকু সময় খোলা পায় তাতে ভীড় লেগে যায়। বাজারে যে ভীড় লেগেছিল তাতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার কোনো সুযোগ ছিল না।

[৯] করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মহামারী আকাড়ে দেখা দিলে তারা উপজেলা প্রশাসনের সাথে কথা বলে বাজারের সময় সংক্ষিপ্ত ঘোষণা করেন।

[১০] প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে দুপুর ১২টা পর্যন্ত খোলা রাখার অনুরোধ জানান। কিন্তু পরিস্থিতি খারাপের দিকে যাওয়ায় সরকারের দেওয়া বিধি মেনে চলার উপর জোর তাগিদ দেন। কঁাচা বাজারের দোকান, আড়ৎ খোলা থাকায় প্রচুর ভীড় হয়েছে।

[১১] উল্লেখ্য,৫ এপ্রিল থেকে ১২ এপ্রিল পর্যন্ত এক সপ্তাহের জন‍্য লকডাউনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সরকার। এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে মাইকিং করেছে উপজেলা প্রশাসন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত