প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাংলাদেশের ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে এ বছর জিডিপির ০.১ শতাংশ, আগামী বছর ০. ২৩ শতাংশ ব্যয় হবে: বিশ্বব্যাংক

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] হার্ড ইমিউনিটি তৈরি হলে ২০.৪৮ বিলিয়ন ডলারের অর্থনৈতিক সুফলের সম্ভবনা ।

[৩] বিশ্বব্যাংকের ‘সাউথ এশিয়া ইকোনমিক ফোকাস স্প্রিং ২০২১: সাউথ এশিয়া ভ্যাকসিনেটস’ প্রতিবেদনে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর আগামী দুই বছরে ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দেওয়ার জন্য কত অর্থ খরচ হবে, তা নিয়ে তিনটি সম্ভাব্য চিত্র দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া ওই প্রতিবেদনে বাংলাদেশসহ দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোর অর্থনীতিতে খরচের অনুপাতে টিকা সুবিধার বিশ্লেষণও তুলে ধরা হয়।

[৪] বিশ্বব্যাংক টিকার পেছনে খরচের ৩টি হিসাব দিয়েছে। প্রথমটি অনুযায়ী, বাংলাদেশে একজন ব্যক্তিকে দুই ডোজ টিকা দিতে সব মিলিয়ে খরচ হবে ১৯ ডলার। আগামী দুই বছরে প্রায় ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে খরচ হবে ১৯২ কোটি ডলার । ২য় হিসাবে এক ব্যক্তিকে দুই ডোজ টিকা দিতে সব মিলিয়ে খরচ পড়বে ১৬ থেকে ১৭ ডলার। আর ৭০ শতাংশ মানুষকে টিকা দিতে সব মিলিয়ে খরচ হবে ১৩৬ কোটি ডলার বা সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকা। সর্বশেষ হিসাবে দুই ডোজ টিকার দাম পড়বে ৬ ডলার। এ ছাড়া পরিবহন খরচ যুক্ত হবে। কোভ্যাক্স টিকার দাম ধরেই এ খরচের হিসাব করা হয়েছে। বাংলাদেশ এখন ৩য় ধাপটি মেনে চলছে। [

[৬] প্রতিবেদনে বিশ্বব্যাংক বলেছে, বাংলাদেশের প্রধানতম ঝুঁকি দূর্বল অবকাঠামো। সম্পাদনা : মোহাম্মদ রকিব

সর্বাধিক পঠিত