প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দৌলতখানে ডায়রিয়ার প্রকোপ

মোঃ মামুন: [২] ভোলার দৌলতখানে গত কয়েক দিন ধরে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে। আবহাওয়া পরিবর্তনের সাথে সাথে গরম বেড়ে যাওয়ায় ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়েছে বলে জানিয়েছে উপজেলা স্বাস্থ্যবিভাগ।

[৩] মঙ্গলবার সকালে দৌলতখান হাসপাতালে গিয়ে দেখা যায় ডায়রিয়া রোগীর ভিড় লেগে আছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায় প্রতিদিন গড়ে এখানে ৩০ থেকে ৪০ জন করে রোগী ভর্তি হচ্ছেন।

[৪] রোগীদের মধ্যে নারী-শিশু ও বয়স্কদের সংখ্যাই বেশি। ৫০ শয্যাবিশিষ্ট দৌলতখান উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ডায়রিয়া রোগীদের জন্য রয়েছে ১১ শয্যা। হঠাৎ করে ডায়রিয়ার প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় তা এখন ২০ শয্যা করা হয়েছে।

[৫] হাসপাতালে ডায়রিয়া ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন সুমির মা জানান, গতকাল থেকে বাচ্চার ডায়রিয়া ও বমি দেখা দেয়। সকালে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে এসেছি। ডায়রিয়া রোগী হালিমা (৩০) জানান, তিনি ডায়রিয়া আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিতে চরপাতা ইউনিয়ন থেকে এসেছেন।

[৬] দেড় বছরের শিশু আবিরের মা বলেন, হঠাৎ করেই বাচ্চার পাতলা পায়খানা ও প্রচন্ড বমি দেখা দেওয়ায় সাথে সাথে হাসপাতালে নিয়ে এসেছি।রোগীদের চাপ বেড়ে গেলেও তাদের ঠিকমত চিকিৎসা সেবা দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কর্তব্যরত নার্সরা।

[৭] দৌলতখান হাসপাতালের নার্স শারমিন বেগম জানান, ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা প্রতিদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমরা রোগীদের যথাসাধ্য চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছি। হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডাক্তার পিয়াস কান্তি সাহা জানান, গত মাস থেকে ডায়রিয়া রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে।

[৮] প্রতিদিনই গড়ে ৩০ থেকে ৪০ জন করে রোগী ভর্তি হচ্ছেন।ডায়রিয়া ওয়ার্ডে আকস্মিকভাবে রোগীর চাপ বেড়ে গেলেও তাদের চিকিৎসা সেবায় কোন ঘাটতি হবেনা বলে জানিয়েছেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাক্তার আনিসুর রহমান।

[৯] তিনি জানান, ডায়রিয়া রোগীদের চিকিৎসায় পর্যাপ্ত ওষুধ-স্যালাইনসরবরাহ রয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আবহাওয়ার পরিবর্তন ও মানুষের খাদ্যাভ্যাসের ত্রুটি ডায়রিয়ার প্রকোপ দেখা দেওয়ার কারণ হতে পারে।সম্পাদনা:অনন্যা আফরিন

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত