প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] প্রথম দফার তালিকায় রয়েছে প্রায় দেড় লাখ বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম, ১৯১ বুদ্ধিজীবীর তালিকাও প্রকাশ করেছে সরকার

তাপসী রাবেয়া: [২] বীর মুক্তিযোদ্ধা তালিকার শুরুতেই রয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ জাতীয় চার নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দীন আহমদ, এম মনসুর আলী ও এএইচএম কামারুজ্জামানের নাম।

[৩] একই সঙ্গে নাম প্রকাশ করা হয়েছে ১৯১ জন শহীদ বুদ্ধিজীবীর নাম।

[৪] এটা পূর্ণাঙ্গ তালিকা নয় জানিয়ে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী বলেন, যথাযথ প্রক্রিয়ায় তৃণমূল হতে তদন্তের মাধ্যমে যাচাই-বাছাই করে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের এই তালিক প্রকাশ করা হলো।

[৫] তালিকায় ঢাকা বিভাগে ৩৭ হাজার ৩৮৭ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৩০ হাজার ৫৩ জন, বরিশাল বিভাগে ১২ হাজার ৫৬৩ জন, খুলনা বিভাগে ১৭ হাজার ৬৩০ জন, ময়মনসিংহ বিভাগে ১০ হাজার ৫৮৮ জন, রাজশাহী বিভাগে ১৩ হাজার ৮৯৯ জন, রংপুর বিভাগে ১৫ হাজার ১৫৮ জন এবং সিলেট বিভাগে ১০ হাজার ২৬৪ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম রয়েছে।

[৬]মন্ত্রী বলেন, এমআইএস (ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম) সিস্টেমে এক লাখ ৮২ হাজার ৮৩৪ জন বীর মুক্তিযোদ্ধার নাম অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে। তবে প্রায় ৩৫ হাজার জনের নাম বেসামরিক গেজেট তালিকায় রয়েছে ,তাদের নাম আপাতত প্রকাশ করা হবে না। তাছাড়া জামুকার সুপারিশবিহীন যে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের যাচাই-বাছাই চলছে, তাদের নামও তালিকায় থাকছে না। ইতিমধ্যে গেজেট নিয়মিতকরণের লক্ষ্যে ৪৩৪ উপজেলা থেকে এ সংক্রান্ত প্রতিবেদন মন্ত্রণালয়ে এসেছে।

[৭] সদ্য সমাপ্ত যাচাই-বাছাই প্রক্রিয়াতে যেসব বীর মুক্তিযোদ্ধার স্বীকৃতি পেতে কিছু সমস্যা হয়েছে আগামী মাসে (এপ্রিল) জামুকায় তাদের আপীল শুনানি হবে। এখানে যাচাই-বাছাই শেষে চলতি বছরের ৩০ জুন বীর মুক্তিযোদ্ধাদের নামের চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে।

[৮] বৃহস্পতিবার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে তালিকাটি প্রকাশ করেন মন্ত্রী আকম মোজাম্মেল হক।

সর্বাধিক পঠিত