প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মার্কিন প্রতিরক্ষায় কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ব্যবহারে উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের পরামর্শ

রাশিদুল ইসলাম : [২] ২০১৯ সালে যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ডিফেন্স অথোরাইজেশন এ্যাক্ট অনুসারে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা নিয়ে কাজ করতে ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিশন গঠন করা হলেও এক্ষেত্রে যথাযথ কাজ হয়নি। বিষয়টি পর্যালোচনা করে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ও এ সম্পর্কিত প্রযুক্তি ব্যবহারে আরো অগ্রসর হওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। স্পুটনিক

[৩] দেশটির ন্যাশনাল সিকিউরিটি কমিশন বলছে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা প্রয়োগ বা এধরনের প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রস্তুতির অভাব ছিল। এক্ষেত্রে বর্তমান চাহিদা মোকাবেলায় উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন জরুরি।

[৪] কমিশন একই সঙ্গে এ খাতে বিনিয়োগ ও সম্পদের যথাযথ ব্যবহার শুরু করতে বলেছে। এবং তা করলে শুধু ভবিষ্যৎ সমৃদ্ধি নিশ্চিত হবে তা নয় একই সঙ্গে গণতন্ত্রের রক্ষাকবচ হিসেবে তা কাজ করবে।

[৫] কমিশন পরামর্শ দিয়ে বলেছে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিদ্বন্দ্বি দেশগুলো প্রতিরক্ষার ক্ষেত্রে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার ব্যবহারে অনেকটা এগিয়ে যাওয়ায় বিষয়টি হুমকির সৃষ্টি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় সুরক্ষার জন্যে দ্রুত এ বিষয়টির দিকে নজর দেওয়া জরুরি।

[৬] কমিশন সিলিকন ভ্যালিতে পেন্টাগনের বিনিয়োগের সমালোচনা করে বলেছে বরং এধরনের ব্যয়বহুল বিনিয়োগের চেয়ে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তায় বিনিয়োগ বৃদ্ধি প্রয়োজন এবং তা উপলব্ধি করতে হোয়াইট হাউসের নেতৃত্বের নজর জরুরি। মন্ত্রিপরিষদের সদস্যদেরও বিষয়টির দিকে পদক্ষেপের সঙ্গে সঙ্গে কংগ্রেসের সমর্থনও প্রয়োজন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত