প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] এফএটিএফ-এর ধূসর তালিকাতেই রয়ে গেলো পাকিস্তান, সময় পেয়েছে জুন পর্যন্ত

সালেহ্ বিপ্লব: [২] সন্ত্রাসবাদে অর্থায়নের তকমা আর যেন ঘুচলো না পাকিস্তানের। বৃহস্পতিবার ফিনান্সিয়াল এ্যাকশন টাস্ক ফোর্স (এফএটিএফ) আগামী জুনের মধ্যে তাদের দেয়া শর্তাবলী পুরোপুরি পূরণের নির্দেশনা দিয়েছে। ইয়ন, হিন্দুস্তান টাইমস, নাগাল্যান্ড টাইমস, এক্সপ্রেস ট্রিবিউন

[৩]  প্যারিসভিত্তিক সংস্থাটির  প্রেসিডেন্ট মার্কুস প্লিয়ার অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে বলেন,  ২৭ দফার যে অ্যাকশন প্ল্যান দেয়া হয়েছে, তাতে অনেকটাই অগ্রগতি করেছেছে ইসলামাবাদ। কিন্তু যতোটা দরকার ছিলো ততোটা উন্নতি তারা করতে পারেনি।

[৪] বিশ্বব্যাপী সন্ত্রাসবাদে অর্থায়নের ওপর নজর রাখা এই সংস্থা গত অক্টোবরে পাকিস্তানকে ওই ২৭টি কাজ সম্পন্ন করার জন্য সময় বেঁধে দিয়েছিলো ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

[৫] মার্কুস জানান, পাকিস্তান ২৪টি শর্ত পূরণ করতে পেরেছে। গত সোমবার এফএটিএফ-এর প্লেনারি সভায় নেয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী বাকি তিনটি কাজ শেষ করার জন্য দেশটিকে আরও চার মাস সময় দেয়া হয়েছে।

[৬] এফএটিএফ-এর শর্ত পুরোপুরি পালন করতে পারলেই পাকিস্তান ধূসর তালিকা থেকে বের হয়ে আসতে পারবে। অন্যথায় চলে যেতে হবে কালো তালিকায়।

[৭] ধূসর তালিকায় থাকার অর্থ, পাকিস্তান আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ) কিংবা  আন্তর্জাতিক কোনও সংস্থা থেকে বিনিয়োগ বা সাহায্য চাইতেই পারবে না।

[৮] দেশের ভেতরে বাইরে সন্ত্রাসবাদ পরিচালনাকারী ব্যক্তি ও সংগঠনকে মদদ দেয়ার অপরাধে ২০১৮ সালের জুন থেকে  পাকিস্তান এফএটিএফ-এর ধূসর তালিকায় পড়েছে। এই তালিকা থেকে নাম কাটাতে এফএটিএফ-এর দেয়া শর্তাবলী পালনের চেষ্টা করছে দেশটি।

[৯] ধূসর তালিকায় থাকার কারণে এ পর্যন্ত পাকিস্তানের জিডিপির ক্ষতির পরিমাণ ৩৮ বিলিয়ন ডলার, ইসলামাবাদভিত্তিক একটি থিংক ট্যাংক এ তথ্য জানিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত