প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইসলামে পুরুষদের চারটে বিবাহের অধিকার কেন দেওয়া হয়েছে ?

ডেস্ক রিপোর্ট : আমেরিকায় এক কনফারেন্সে এক খ্রিস্টান ভদ্রমহিলা আহমেদ দীদাতকে প্রশ্ন করেন - ইসলামে পুরুষদের চারটে বিবাহের অধিকার কেন দেওয়া হয়েছে? পার্সোনালি এই অধিকারকে আমার অত্যন্ত সেক্সিস্ট মনে হয়।

আহমেদ দীদাত উত্তরে বলেন - অতীতে আরব থেকে কেউ আমেরিকা বা ব্রিটেনে গেলে সবাইকে একটা অবধারিত মজার প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হত - তোমার কতজন স্ত্রী আছে?

ঠিক এমনই প্রশ্নের সম্মুখীন হতে হয়েছিল আমার বন্ধু শেখ আব্দুল করিম বিন লাদেনকে। তাঁর বিনীত জবাব ছিল - আমার একজন স্ত্রী আছেন। কিন্তু এই চারটে বিয়ের নীতি আপনাদের সমস্যার জন্য একমাত্র সমাধান। প্রশ্নকর্তা তো হতবাক। শেখ বলতে থাকেন - পলিগ্যামি ইজ দ্য অনলি সলিউশন অফ ইওর প্রবলেম। আপনি দেখুন স্যর, আপনাদের একটি গভীর সমস্যা আছে। আপনাদের দেশ আমেরিকায় পুরুষদের থেকে ৭.৮ মিলিয়ন নারীর সংখ্যা বেশী। তার মানে যদি আমেরিকার প্রতিটি পুরুষও বিয়ে করে নেয়, তারপরেও ৭.৮ মিলিয়ন নারী থাকবেন যারা বিয়ের জন্য স্বামী পাবেন না।

 

https://www.youtube.com/watch?v=AQE7NUaArIs

 

আমার পরিচিত এক আমেরিকানকে জিজ্ঞাসা করেছিলাম - আপনার বয়স কত? সে বললো - ৩৫। আমি বললাম - বিবাহিত? সে বললো - নাহ! আমি বললাম - আপনার কি সমস্যা আছে আমাকে বলুন। আমি কি আপনাকে কোন ডাক্তারের কাছে নিয়ে যাব যেখানে আপনার সমস্যার সমাধান হতে পারে? নাহলে চলুন, আমার পরিচিত এক বন্ধুর মেয়ে আছে। সুন্দরী, শিক্ষিতা। আপনার সাথে দেখা করিয়ে বিবাহের প্রস্তাব দিই। কিন্তু সেই ভদ্রলোক আমার সাথে বেরিয়েও শেষ মুহূর্তে এক হাস্যকর অজুহাত দিয়ে পালিয়ে গেলেন। পুরুষদের কত মিথ্যা অজুহাত আছে বিয়ে না করার! এমনকি বিয়ে না করেও তারা চাহিদা মিটিয়ে নেওয়ার অনৈতিক পন্থা অবলম্বন করতে পারে। আর মেয়েরা? তাঁরা সবসময় একটা সুস্থ নিরাপত্তা চেয়ে থাকেন। দুরন্ত গরম হোক বা বরফশীতল রাত - তারা চান একটা নিরাপদ আশ্রয়। এটাই স্বাভাবিক। আল্লাহ সুবহানাহু ওয়াতাআ'লা নারী চরিত্রকে এমন ভাবেই তৈরি করেছেন। তাহলে আমেরিকার সমস্ত পুরুষ বিয়ে করে নিলেও ৭.৮ মিলিয়ন নারী অবিবাহিত থেকে যাবেন। এর পরে আছে আরও ২৫ মিলিয়ন পুরুষ। যাদের আপনারা 'গে' বা সমকামী বলে ডাকেন। এবার নিন, তার মানে আরও ২৫ মিলিয়ন নারী থাকবেন যারা নিজেদের জন্য স্বামী পাবেন না। এরপর আছে প্রিজন মেটেরিয়াল। আমেরিকায় যাদের দীর্ঘমেয়াদী জেল হয়েছে এমন কয়েদিদের ৯৮ শতাংশ পুরুষ।

ইসলাম ইজ ইওর সলিউশন। ইসলাম আপনাদের একমাত্র সমাধান। আপনারা আমাদের উপর কি হাসবেন? হাসি তো আপনাদের নিজেদের উপর আসা উচিৎ! ইসলাম বলে - বিয়ে করো তোমার পছন্দমতন দুই, তিন অথবা চার। আর যদি সমতাবিধান করতে না পারো তাহলে তোমার জন্য একজনই উত্তম। অর্থাৎ, এখানে শুধু ইচ্ছে বা চাহিদা থাকলেই হবে না। ইনসাফ এবং সমতার ভারসাম্য বজায় রাখতে হবে। পৃথিবীর বুকে একমাত্র ধর্ম - যেখানে বলা আছে একজন মাত্র নারীকে বিবাহ কর। পৃথিবীতে আর কোন ধর্মগ্রন্থ নেই যেখানে বলা আছে - একজনকে বিবাহ করো, যদি না সমতা বিধান করতে পারো।
করতালিতে ফেটে পড়েছিল গ্যালারি। সেখানে সবথেকে উচ্ছ্বসিত ছিলেন বেশ কিছু হিজাব পরিহিতা নারী।

সূত্র-

আমেরিকায় এক কনফারেন্সে এক খ্রিস্টান ভদ্রমহিলা আহমেদ দীদাতকে প্রশ্ন করেন - ইসলামে পুরুষদের চারটে বিবাহের অধিকার কেন দেওয়া...

Posted by সু তীর্থ on Wednesday, February 24, 2021

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত