প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিশ্বকাপ ২০২২: কাতারে ১০ বছরে প্রাণ দিয়েছে বাংলাদেশিসহ ৫ হাজার ৯২৭ অভিবাসী শ্রমিক

আব্দুল্লাহ যুবায়ের: [২] ২০২২ সালে ফুটবল বিশ্বকাপের ২২ তম আসর বসতে যাচ্ছে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কাতারে। প্রায় ১০ বছর আগেই এই বিশ্বকাপ আয়োজনের স্বত্ত্ব পেয়েছিল দেশটি। বিশাল এ কর্মযজ্ঞে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে কাজ করে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ; অর্থাৎ বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, নেপাল ও শ্রীলংকার মোট ৫ হাজার ৯২৭ জন অভিবাসী শ্রমিক এ ১০ বছরে প্রাণ দিয়েছে। নিহতদের মধ্যে ১ হাজার ১৮জন বাংলাদেশি শ্রমিক রয়েছেন। এমএসএন.কম, দ্য গার্ডিয়ান

[৩] দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদনকে উদ্দেশ্যমূলক বলে মন্তব্য করেছেন দেশটির শ্রমমন্ত্রী ইউসুফ মোহামেদ আল উসমান।

[৪] দ্য গার্ডিয়ানের রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, যদি আমাদের প্রতিবেদনে ২০১০ থেকে ২০১৯ সালের জরিপে দক্ষিণ এশিয়ার বাইরের দেশসমূহের নিহতদের হিসাবটাও তুলে ধরা যেতো, তাহলে নিহতের সংখ্যা আরও বেশি হতো।

[৫] কাতার ফায়ার স্কয়ার প্রজেক্টের পরিচালক নিক ম্যাকজিহান বলেন, অনিরাপদ নির্মাণ ব্যবস্থাপনার জন্য বিভিন্ন দুর্ঘটনায় এসব শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। উপসাগরীয় কোন দেশে শ্রম অধিকার নেই। কাতারের ঘটনা তার প্রমাণ।

[৬] কাতার হিউম্যান রাইটস ওয়াচের উপসাগরীয় গবেষক হিবা জায়াদিন বলেন, আমরা কাতারসহ মধ্যপ্রাচ্যের দেশসমূহকে শ্রমিকদের অধিকার বাস্তবায়নের জন্য আহবান জানিয়ে আসছি। কিন্তু তারা আমাদের ডাকে সাড়া দিচ্ছে না। যা দুঃখজনক।

[৭] কাতার শ্রম মন্ত্রণালয় বলছে, বিশ্বকাপের আয়োজন বাস্তবায়ন করতে গিয়ে এসব শ্রমিক মারা যায়নি। দীর্ঘ সময় ধরে তারা আমাদের দেশে বসবাস করছে। এতে করে তাদের অনেকে স্বাভাবিক নিয়মে দুনিয়া থেকে বিদায় নিয়েছেন। এখানে তো আমাদের করার কিছু নেই।

[৮] দেশটি ফুটবল বিশ্বকাপের আয়োজন সফল করতে তৈরি করছে সাতটি নতুন স্টেডিয়াম ও একটি বিমানবন্দরসহ অসংখ্য রাস্তা ও হোটেল। সম্পাদনা: সারোয়ার জাহান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত