প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আইসিএসবি’র ৭ম জাতীয় কর্পোরেট গভর্ন্যান্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ প্রদান

সোহেল রহমান: [২] সুষ্ঠু কর্পোরেট গভর্ন্যান্স প্রতিপালন ও কোম্পানির সামগ্রিক ব্যবস্থাপনায় স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার জন্য ‘ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) ও ‘চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ’ (সিএসই)-এর তালিকাভুক্ত কোম্পানিগুলোর মধ্যে ১৩টি ক্যাটাগরিতে ৩৫টি কোম্পানিকে পুরস্কৃত করেছে ‘ইনস্টিটিউট অব চার্টার্ড সেক্রেটারিজ অব বাংলাদেশ’ (আইসিএসবি)। শনিবার রাতে রাজধানীর রেডিসন ব্লু ওয়াটার গার্ডেন হোটেলে “আইসিএসবি’র ৭ম জাতীয় কর্পোরেট গভর্ন্যান্স এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০১৯ প্রদান” শীর্ষক পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুন্শি। তিনি পুরস্কারপ্রাপ্ত কোম্পানিগুলোর প্রধানদের হাতে ক্রেস্ট ও সার্টিফিকেট তুলে দেন। বিএসইসি চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলি রুবাইয়াত-উল-ইসলাম ও বাণিজ্য সচিব ড. মোঃ জাফর উদ্দীন এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

[৩] অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কর্পোরেট খাতে পেশাদারিত্ব বিকাশে আইসিএসবি’র ভূমিকার প্রশংসা করে বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দক্ষ কর্পোরেট গভর্ন্যান্স আজকের ব্যবসায়িক বিশে^ ক্রমেই গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠছে। দেশের পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত সকল কোম্পানিগুলোর মধ্যে কর্পোরেট গভর্ন্যান্স নিশ্চিত করা বর্তমান সরকারের প্রতিশ্রæতি।’

[৪] অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ‘বাংলাদেশ সিকিওরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন’ (বিএসইসি)-এর চেয়ারম্যান অধ্যাপক শিবলি রুবায়াত-উল-ইসলাম বলেন, ‘কর্পোরেট গভর্ন্যান্স পুঁজিবাজারের স্থিতিশীলতা ও উন্নয়নের প্রধান নিয়ামক। বিএসইসি ধারাবাহিকভাবে দেশের কর্পোরেট গভর্ন্যান্স কার্যক্রম পর্যালোচনা করছে। কর্পোরেট প্রশাসনের ক্ষেত্রে দক্ষতা নিশ্চিত করতে চার্টার্ড সেক্রেটারিদের আরও অনেক বড় ভূমিকা পালন করতে হবে।’

[৫] বাণিজ্য সচিব ডঃ মোঃ জাফর উদ্দীন বলেন, ‘সুশাসন আমাদের দেশের টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি। সুশাসন নিশ্চিত করতে আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে।’

[৬] আইসিএসবি’র প্রেসিডেন্ট মোজাফফর আহমেদ বলেন, ‘ভাল কর্পোরেট গভর্ন্যান্স নিশ্চিত করা এখন সময়ের দাবি। আইসিএসবি’র কর্পোরেট গভর্ন্যান্স অ্যাওয়ার্ড বাংলাদেশের কর্পোরেট সুশাসন নিশ্চিতকরণে কোম্পানিগুলোকে অনুপ্রাণিত করবে। আইসিএসবি’র দক্ষ কোম্পানি সচিব বিভিন্ন কোম্পানিগুলোতে এ ব্যাপারে উল্লেখযোগ্য ভুমিকা রাখতে পারবে।’

[৭] সংগঠনের সাবেক প্রেসিডেন্ট ও কর্পোরেট গভর্নেন্স অর্গানাইজিং কমিটির চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সানাউল্লাহ কর্পোরেট খাতে পেশাদারিত্ব বিকাশের জন্য আইসিএসবি’র ভূমিকার প্রশংসা করে বলেন, ‘ব্যবসার দীর্ঘ মেয়াদী লক্ষ্য পূরণের ক্ষেত্রে সুশাসন নিশ্চিত করলে কর্মীদের মনোবল ও উৎপাদনশীলতা উন্নয়নে সহায়তা করে। কর্পোরেট গভর্ন্যান্স কোড প্রবর্তন বিএসইসি কর্তৃক গৃহীত একটি যুগান্তকারী পদক্ষেপ, যা অবশ্যই দেশে কর্পোরেট সুশাসন বিকাশে সহায়তা করবে।’ সুষ্ঠু ব্যবসায়িক প্রতিযোগিতার জন্য বাংলাদেশে বিদ্যমান বৃহত্তর সরকারি-বেসরকারি লিমিটেড কোম্পানিগুলোকে কর্পোরেট গভর্ন্যান্স কোডের পরিধি বাড়ানোর আহŸান জানান তিনি।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত