প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইকবাল আনোয়ার: আপাস আকথা : পরীক্ষক-পরীক্ষার্থী

ইকবাল আনোয়ার: পরীক্ষক বলেন পরীক্ষার্থীকে, তুই ফেল। পরীক্ষার্থী : ফেল করলাম কেনো, স্যার? আপনিই তো শিক্ষক ছিলেন। তুই শিখতে পারিসনি। এটা কি আমার দোষ? দোষ হতো না, যদি না অধিকাংশ ফেল না করতো। দেখছি স্যার, ছাগলের লোমের মতো, কালো ছাগলের দেহে দু একটি সাদা লোম খুজলে পাওয়া যায়, সেই সাদা লোমের সংখ্যার মতোই পাসের সংখ্যা। আচ্ছা স্যার, ভাবুনতো দেখি, এক কুমোরের কথা, যে নাকি কলস বানায়। যার প্রায় সব কলসই হয় ফুটা। সে কেমন কুমোর। পরীক্ষক এবার বলেন, যা তুই পাস। আমি একা কেনো, অন্য যারা ফেল করেছে, তাদেরও পাস দিয়ে দেন। আপনিই তো স্যার ন্যায় নীতি শিখিয়েছেন। যা, সব ফেলই পাস। তা হলে স্যার কিসের পরীক্ষা হলো। যারা পাস করেছিলো, তাদের প্রতি তো অবিচার হলো। কী বিপদ তোকে নিয়ে।

বিপদ নয় স্যার। আচ্ছা স্যার, আপনি কি কখনো পরীক্ষা দিয়েছেন? শিক্ষক এ পর্যায়ে রেগে বলেন, আমাকে পরীক্ষা দিতে হয় না। আমি কেবল শিক্ষক। ছাত্র নই কখনো। ছাত্র হলে, কী করে আমি খাঁটি শিক্ষক হবো। আমি পরীক্ষা দিলে, কী করে খাঁটি বা বিশুদ্ধ পরীক্ষক হবো? তা হলে তো আমিও পরীক্ষার্থীই হলাম। তাই তো বলি স্যার। আপনি পরীক্ষা দেননি বলে, পরীক্ষা দরিয়ার দুর্দশা আর অসহায় অবস্থা আপনি জানেন না। অথবা আপনি জানেন। অথবা কেনো বলছি, আপনি অবশ্যই জানেন। আপনি সব জানেন। এ সবই আপনার খেলা স্যার। ফেসবুক থেকে মাসুদ হাসান

 

সর্বাধিক পঠিত