প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিপণীবিতানে নেই শারীরিক দূরত্ব, মাস্কও উপেক্ষিত

তরিকুল ইসলাম: [২] প্রথম ওয়েভ থেকে করোনার দ্বিতীয় ওয়েভে আরও বিপদজনক সময়ে প্রবেশ করেছে বাংলাদেশ। শুক্রবার নিউমার্কেটসহ রাজধানীর বিপণীবিতানগুলোতে দেখা গেছে মানুষের উপচে পড়া ভিড়।

[৩] সুপার শপগুলোতে দায়সারাভাবে ব্যবহার হচ্ছে ইনফ্রারেড থার্মোমিটার। জীবাণুনাশক টানেল অধিকাংশই বন্ধ।

[৪] মাস্কের ব্যবহার কিছুটা দেখা গেলেও মাস্ক ব্যবহার না করাদের সংখ্যা ছিলো উল্লেখযোগ্য। যাদের সঙ্গে ছিল তারাও যথাযথভাবে করেননি মাস্কের ব্যবহার। সড়ক তীব্র যানজটও ছিল চোখে পড়ার মতো।

[৫] বিপণীবিতানের সামনে এবং বিভিন্ন স্থানে ব্যক্তি, সংগঠন ও কর্তৃপক্ষের উদ্যোগে রাখা হাত ধোয়ার বেসিন ও পানির ড্রামগুলোতে নেই সাবানপানি। কোথাও পড়ে আছে ভাঙা বেসিন, আবার কোথাও উল্টে আছে ড্রাম।

[৬] করোনা বলে কিছু আছে সেটা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ছাড়া বোঝার উপায় নেই। অবশ্য ক্রেতাদের একটি অংশ শিক্ষার্থীরাই। ছুটির দিন হওয়াতে অভিভাকদের সঙ্গে প্রয়োজনীয় পণ্য ও শীতের কাপড় কিনতে বেরিয়েছেন তারা।

[৭] বাচ্চাদের সঙ্গে নিয়ে কেনাকাটা করতে আসা একজন অভিভাবক বলেন, গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গা না পাওয়ায় ও প্রচণ্ড যানজট থাকায় গাড়ি থেকে নেমেই কেনাকাটা সেরে ফেলেছি। এতো লোক সমাগম হয়েছে যে, সুনির্দ্দিষ্ট পণ্যের গুণগত মান ও দরদামের জন্যও দোকানির জন্য অপেক্ষায় থাকতে হয়েছে। এতো ভিড়ের মধ্যে চাইলেও শারীরিক দূরত্ব মানার সুযোগ নেই। সম্পাদনা: সমর চক্রবর্তী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত