প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১]ডেঙ্গুর ‘কার্যকর ওষুধ’ পাওয়ার দাবি বাংলাদেশি গবেষকদের

শিমুল মাহমুদ: [২] ‘এলট্রম্বোপ্যাগ’ নামের একটি জেনেরিক ওষুধের (ট্যাবলেট) স্বল্পমাত্রার সংক্ষিপ্ত ডোজ ডেঙ্গু রোগীদের প্রয়োগ করে তারা কার্যকারিতা পেয়েছেন বলে চিকিৎসা বিষয়ক সাময়িকী দ্যা ল্যানসেটে তুলে ধরা হয়েছে।

[৩] ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মৌসুমী সান্যাল ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক এএইচএম নুরুন নবীসহ ১২ জনের দলটি যৌথভাবে এই পরীক্ষা চালান।

[৪] অধ্যাপক নুরুন নবী বলেন, রোগী ব্লাড ম্যানেজ করতে না পারলে তাকে বাঁচাতে ঢাকা মেডিকেল কলেজের ডা. মৌসুমী ‘এলট্রম্বোপ্যাগ’ ওষুধটি ব্যবহার করেন। এতে পরের দিনই ওই রোগী ভালো হয়ে যান। এই সুফলের ফলে তিনি আরও চারজন অসহায় রোগীর চিকিৎসা করেন। কিন্তু মোট পাঁচ জনের মধ্যে দুইজন ভাল ফল পান, দুইজন মোটামুটি আর একজনের ফলাফল আশানুরূপ পাওয়া যায়নি।

[৫] তিনি বলেন, এই ওষুধ ডেঙ্গু রোগের চিকিৎসার ক্ষেত্রে এখনও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইনে আসেনি। আরও বৃহৎ পরিসরে পরীক্ষা করে সফলতা পাওয়া গেলে তখন নিশ্চয়ই এটা ডেঙ্গুর চিকিৎসার গাইডলাইনে অন্তর্ভুক্ত হবে। আমাদের গবেষণার উদ্দেশ্য হলো, সবাইকে যাতে রক্তের জন্য দৌড়াতে না হয়।

[৬] বাংলাদেশের একটি ওষুধ কোম্পানির অর্থায়নে এই গবেষণা দলে আরও ছিলেন- ঢাকা মেডিকেল কলেজের ডা. আহমেদুল কবির, ডা. রোবেদ আমিন, ডা. চৌধুরী তামান্না তাবাস্সুম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষক সজীব চক্রবর্তী, স্নাতকোত্তরের শিক্ষার্থী সারওয়ার আলম, মোহাম্মদ সায়েম, তন্ময় দাশ ও পিয়াল সাহা, স্কয়ার হাসপাতালের চিকিৎসক বার্থোলোমিয়া কেয়া বেপারী, আইচি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ডা. মোহাম্মদ সায়েম। সম্পাদনা: শাহানুজ্জামান টিটু

সর্বাধিক পঠিত