প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফেসবুকের মাধ্যমে ২ বছর পর নিজ ঠিকানায় ফিরলো রিয়া

ডেস্ক রিপোর্ট: আট বছরের শিশু রিয়া মণি। জন্মের কয়েক বছরের মাথায় তার মা মারা যান। পরে বাবাও তাকে ফেলে চলে যায়। নানা-নানির কাছে থাকা রিয়াকে পাঠানো হয় ঢাকার পোস্তগোলার খালার বাসায়। সেখান থেকে দুই বছর আগে হারিয়ে যায় সে। কিন্তু ভাগ্যক্রমে আবার নানা-নানির কাছে ফিরেছে রিয়া। ফিরে পেয়েছে নিজের পুরোনো ঠিকানা। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ময়মনসিংহের ফুলপুর উপজেলা প্রশাসনের দেওয়া একটি পোস্ট পরিবারের কাছে ফিরিয়ে দিয়েছে তাকে।পূর্বপশ্চিম

রিয়া জেলার তারাকান্দা উপজেলার গালাগাঁও ইউনিয়নের কলহরী (ইটখোলা) গ্রামের রমজান আলীর নাতনি। সোমবার বিকেলে তাকে ফুলপুর উপজেলা পরিষদ সংলগ্ন কোর্ট ভবনের পাশে পান স্থানীয় এক ব্যক্তি। কাঁদতে দেখে তাকে তারাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) সীতেষ চন্দ্র সরকারের কাছে নিয়ে যান। ওই সময় শিশুটি নিজের নাম রিয়া, বাবার নাম নুরুল আমিন ও মায়ের নাম রাবেয়া বলে জানায়। নানা-নানির পরিচয়সহ অন্যান্য বিষয়ও জানায় সে। ইউএনও তার ফেসবুক পেজে মেয়েটির নাম ও ঘটনার বর্ণনা লিখে পোস্ট করেন। মেয়েটির পরিবারের সন্ধান চেয়ে যোগাযোগ করতে বলা হয়। রাত ১১টার দিকে তাকে চেনার কথা জানিয়ে নানা রমজান আলী ও নানি রহিমা খাতুন ফুলপুর থানায় হাজির হন।

রিয়া জানায়, রাসেল নামের এক ব্যক্তি তাকে বিভিন্ন বাসায় গৃহপরিচারিকা হিসেবে কাজ করাত। সোমবার ঢাকা থেকে তাকে ফুলপুরে নিয়ে যায় রাসেল। কিন্তু বাসস্ট্যান্ডে নামার পরই কান্নাকাটি করায় রাসেল সেখান থেকে চলে যায়।

রমজান আলী জানান, তার নাতনির প্রকৃত নাম মিম আক্তার। অনেক খোঁজ করেও নাতনিকে না পেয়ে আশা ছেড়ে দিয়েছিলেন। কিন্তু দীর্ঘ দুই বছর পর ফিরে পেয়েছেন।

ফুলপুর ইউএনও সীতেষ চন্দ্র সরকার বলেন, শিশুটিকে তার নানা-নানির কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত