প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বিপ্লব ঘটে গেছে খুব নীরবে, এক যুগে দেশে ভুট্টার ফলন বেড়েছে সাত গুণ

সালেহ্ বিপ্লব: [২] হেক্টরপ্রতি উৎপাদন যুক্তরাষ্ট্রের কাছাকাছি, ২০২৫ নাগাদ রপ্তানি শুরুর স্বপ্ন

[৩] ২০০৯ সালে দেশে ভুট্টা উৎপাদনের পরিমাণ ছিলো সাড়ে ৭ লাখ টন। ২০১৫-১৬ অর্থবছরে তা ২৭ লাখ টনে উন্নীত হয়। ২০১৯-২০ অর্থবছরে উৎপাদন ৫৪ লাখ টন। বাসস

[৪] কৃষি বিশেষজ্ঞ নিতাই চন্দ্র রায়ের মতে, এ বিপ্লবের নেপথ্য নায়ক দেশের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের পরিশ্রমী কৃষক, কৃষি কর্মকর্তা, কৃষি বিজ্ঞানী এবং হাইব্রিড বীজ বিপণনকারী বেসরকারি কোম্পানিগুলো। দেশরূপান্তর

[৫] কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর জানায়, দেশে প্রাণিসম্পদ ও মৎস্য খাত দ্রুত বৃদ্ধি পাচ্ছে। খাদ্যের চাহিদা বাড়ছে। তাই ভুট্টার চাষ বাড়ছে, ফলনও। বর্তমানে সাড়ে পাঁচ লাখ হেক্টর জমিতে আবাদ হচ্ছে। জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থার (এফএও) মতে, উচ্চ ফলনশীল বীজ ব্যবহারের কারণে এ অঞ্চলে ভুট্টার সর্বোচ্চ ফলন হচ্ছে বাংলাদেশে।

[৬] মার্কিন কৃষি বিভাগের আগস্ট-২০২০-এর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত মৌসুমে হেক্টরপ্রতি ভুট্টা উৎপাদনে সবচেয়ে বেশি ফলনের রেকর্ড তুরস্কের, সাড়ে ১১ টন। সাড়ে ১০ টন যুক্তরাষ্ট্র আর বাংলাদেশে হেক্টরপ্রতি ফলন পৌনে ১০ টন।

[৭] ভুট্টার বার্ষিক চাহিদা এখন ৬০ লাখ ৫০ হাজার টন। ১০ লাখ টন আমদানি করতে হয়। এক ওয়েবিনারে কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, কৃষকদের সব ধরনের সহযোগিতা দিয়ে ২০২৫ সালের মধ্যে ভুট্টায় স্বাবলম্বী হওয়া তার মন্ত্রণালয়ের লক্ষ্য।

[৮] কৃষি বিভাগের মতে, ফলন বাড়াতে দরকার দুটি পদক্ষেপ। আরো বেশি জমিতে চাষ করতে হবে। আর ভুট্টা গাছকে রক্ষা করতে হবে ফল আর্মিওয়ার্ম (এফ এ ডব্লিউ) নামের কীটের আক্রমণ থেকে। সম্পাদনা : সমর চক্রবর্তী

সর্বাধিক পঠিত