প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] নির্বাচনকে সামনে রেখে যুক্তরাষ্ট্রের বাজারে রেকর্ড হারে বেড়েছে অস্ত্র বিক্রি

লিহান লিমা: [২] আগামী ৩ নভেম্বরের নির্বাচনের পূর্বে আশঙ্কাজনক হারে যুক্তরাষ্ট্রে প্রত্যেক রাজ্যে অস্ত্র বিক্রি বেড়েছে। অস্ত্রের বিক্রি বাড়ায় ওয়ালমার্ট আমেরিকা নিজেদের স্টোর থেকে সব অস্ত্র ও অস্ত্রজাত সামগ্রী সরিয়ে রেখেছে। ডেইলি মেইল/টাইমস অব ইন্ডিয়া

[৩] সর্বশেষ জনমত জরিপে দেখা গিয়েছে, বাইডেন ট্রাম্পের চেয়ে ৮ ভাগ এগিয়ে রয়েছে। ট্রাম্প যদি পরাজয় মানতে অস্বীকৃতি জানান তবে মূল লড়াই আদালতে হলেও রাজপথে সহিংসতা নামবে। ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজের কট্টর ডানপন্থী ও চরমপন্থী সমর্থকদের যে কোনো মুহুর্তে তৈরি থাকার নির্দেশ দিয়ে রেখেছেন।

[৪] গত সপ্তাহে আর্মড কনফ্লিক্ট লোকেশন ও ইভেন্ট ডেটা প্রজেক্ট এবং মিলিশিয়া ওয়াচ এর যৌথভাবে প্রকাশিত গবেষণায় বলা হয়েছে, নির্বাচনকে কেন্দ্র করে ব্যাটেলগ্রাউন্ড স্টেট পেনসেলভেনিয়া, জর্জিয়া, মিশিগান ও উইসকনসিনে সশস্ত্র সংঘাতের ঝুঁকি রয়েছে। তাদের প্রতিবেদনে ৯টি গোষ্ঠিকে শনাক্ত করে বলা হয়, ‘প্রাউড বয়েজ, প্যাট্রিয়ট প্রেয়ার, ওথ কিপার, লাইট ফুট মিলিশিয়া, সিভিলিয়ান ডিফেন্স ফোর্স, আমেরিকান কনটিনগেন্সি, বোগালো বোয়েসের মতো সক্রিয় সশস্ত্র সংগঠনগুলো নির্বাচনের আগে পরে দাঙ্গা ও সহিংসতা বাঁধাতে পারে। এর মধ্যে কিছু গোষ্ঠি প্রকাশ্যে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে সমর্থনের কথা জানিয়েছে এবং ট্রাম্পও কিছু গোষ্ঠির প্রকাশ্যে প্রশংসা করেছেন।

[৫]ফেসবুকের সিইও মার্ক জাকারবার্গ উদ্বেগ প্রকাশ করে গত বৃহস্পতিবার বলেছেন, ‘পুরো জাতি বিভক্ত হয়ে পড়েছে। নির্বাচনের ফলাফল বা এই দিনগুলোতে দেশজুড়ে নাগরিক সহিংসতা দেখা দিতে পারে।’

[৬] করোনা ভাইরাস, শাটডাউন, বর্ণবাদী সহিংসতা ও রাজনৈতিক উত্তেজনাকে কেন্দ্র করে পূর্ববর্তী যে কোনো বছরের তুলনায় এই বছর যুক্তরাষ্ট্রে রেকর্ড পরিমাণ অস্ত্র বিক্রি হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রে জাতীয় সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে এই প্রথমবারের মতো রেকর্ড পরিমাণে প্রায় ৫০ লাখ মার্কিনী আগ্নেয়াস্ত্র কিনেছেন।

[৭]বিশ্বজুড়ে সাধারণ জনগণের অস্ত্র মালিকায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে দেশটির প্রতি ১০০ বাসিন্দার হাতে ১২০.৫টি অস্ত্র রয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত