প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক নিয়মিত করার উদ্যোগ, বৈঠক বসায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এগিয়ে

মনিরুল ইসলাম: [২] একাদশ জাতীয় সংসদের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকে দেশে করোনা সংক্রমণকালে অনিয়মিত হলেও আগষ্ট মাস থেকে নিয়মিত হতে শুরু করেছে। তবে কার্য প্রনালী বিধি অনুযায়ী মাসে অন্তত ১টি করে বৈঠক করার কথা থাকলেও বেশির ভাগ কমিটি সেটা মানছে না বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়।

[৩] সূত্র জানায়, চলমান একাদশ জাতীয় সংসদ যাত্রা শুরু করার ১০ কার্যদিবসে মধ্যে ৫০টি সংসদীয় স্থায়ী কমিটি গঠন করা হয়। প্রথম বছরে নূন্যতম ১টি করে বৈঠক করেছে ২ টি কমিটি। কমিটি ২টি হলো সরকারি হিসাব ও নৌপরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি।

[৪] করোনা সংক্রমণের ভয়াবহকালে সংসদীয় কমিটির বৈঠক করেছে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়ক সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি। পিছিয়ে থাকেনি এ কমিটি। সরকারি ছুটি থাকাকালে গত ১৭ মে এ কমিটি বৈঠক করে। এটি ছিল ১৩তম বৈঠক। সর্বশেষ গত ২১ অক্টোবর ১৭তম বৈঠকসহ বর্তমান সময়ে এই কমিটি মোট ৫টি বৈঠক করেছে।

[৫] এদিকে, সংসদ সচিবালয়ের আইন শাখা-১ এর উপসচিব মো নাজমুল হক বলেন, কার্যপ্রণালী বিধিতে মাসে নূন্যতম ১টি করে সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠানের বিধান রয়েছে। তবে না হলে কি হবে তা বলা নেই।

[৬] অপরদিকে, সূত্র জানায়, গত সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ৯ মাসে ১টি করেও বৈঠক করেনি বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় এবং পার্বত্য চট্টগ্রামে বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটি।
তবে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির সভাপতি মির্জা আজম বলেন, করোনা পরিস্থিতির কারণে বৈঠক করা সম্ভব হয়নি। আগামী মাস থেকে নিয়মিত করা হবে।

[৭] অন্যদিকে, সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা যায়, মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি গত ২২ অক্টোবর পর্যন্ত ৬৭টি বৈঠক বসেছে । এর মধ্যে মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত ৩৯টি সংসদীয় কমিটির মধ্যে ৩৪টির বৈঠক হয়েছে। তারা বৈঠক করেছে ৫৯টি। অপরদিকে সংসদ সম্পর্কিত ১১টি কমিটির মধ্যে চারটির বৈঠক হয়েছে।

[৮] গত ৮ মার্চ দেশে করোনা রোগী শনাক্ত হওয়ার পর এই মহামারির সংক্রমণ প্রতিরোধে ২৬ মার্চ থেকে সরকারি ছুটি শুরু হয়। এর আগে ও পরে বেশ কয়েকটি সংসদীয় কমিটির বৈঠকের সিডিউল থাকলেও তা বাতিল করা হয়।

[৯] সংসদ সচিবালয় সূত্র জানায়, সরকারি ছুটি ঘোষণার দুই দিন আগে ২৪ মার্চ কোভিড-১৯ সংশ্লিষ্ট সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ কমিটি স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠক হয়। ওই বৈঠকে দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হয়েছিল। ওই বৈঠকে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসায় নিয়োজিতদের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যক ব্যক্তিগত সুরক্ষা সামগ্রী (পিপিআই) সরবরাহে কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া, আইসোলেশনের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা ও আইসিইউ সুবিধার বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার সুপারিশ করা হয়েছিল। গত ৭ মাসে এই কমিটি কোনও বৈঠক করেনি।

[১০] দেশে করোনা সংক্রমণের পর বানিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি কোনও বৈঠক করেনি। তবে চলতি বছরের শুরুর দিকে এ কমিটি ২টি বৈঠক করে। আগামী ২৭ অক্টোবর বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠানের কথা রয়েছে।

[১১] করোনাকালে নৌ-পরিবহন মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি চারটি বৈঠক করেছে। এ পর্যন্ত কমিটির মোট ২৪টি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে। মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটিও করোনার সময় ৪টি বৈঠক করেছে।

[১২] এছাড়া করোনার সময়ে ৩টি করে বৈঠক করেছে মুক্তিযোদ্ধা, পরিবেশ, বন ও জলবায়ু, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ, বেসামরিক বিমান চলাচল ও পর্যটন এবং সরকারি প্রতিশ্রুতি সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি।

[১৩] এরপর রয়েছে ২টি করে বৈঠক শিক্ষা, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়, রেলপথ, সাংস্কৃতি, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ, প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান, প্রতিরক্ষা, শ্রম ও কর্মসংস্থান, গৃহায়ন ও গণপূর্ত, আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং সরকারি হিসাব ও অনুমিত হিসাব সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি।

[১৪] আর ১টি করে বৈঠক করেছে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়, ভূমি, তথ্য, ডাক, টেলিযোগাযোগ ও আইসিটি, যুব ও ক্রীড়া, খাদ্য, কৃষি, বিদুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ, স্থানীয় সরকার পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক মন্ত্রণালয় এবং সরকারি প্রতিষ্ঠান সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি।

[১৫] এদিকে, চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী বলেন, কোভিড-১৯ এর কারণে সংসদীয় কমিটির বৈঠক অনিয়মিত হয়ে পড়ে এটা সঠিক। আমরা এখন বিধি মেনে নিয়মিত করার উদ্যোগ নিয়েছি।

সর্বাধিক পঠিত