প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অপহরনের নাটক সাজাতে গিয়ে পুলিশের খাঁচায় বন্দী হলেন সাতক্ষীরার ৭ প্রতারক চক্র

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি : [২] অপহরনের নাটক সাজাতে গিয়ে পুলিশের খাঁচায় বন্দী হলেন সাতক্ষীরার ৭ প্রতারক চক্র। মঙ্গলবার বিকালে সদর থানায় এক প্রেস ব্রিফিং এ তথ্য জানান পুলিশ। এর আগে সোমবার রাতে খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের গোপীনাথপুর এলাকার বেসরকারী উন্নয়ন সংস্থা ঋশিল্পীর সামনে এ অপহরনের নাটক সাজানো হয়।

[৩] আটককৃতরা হলেন, তালা উপজেলার নগরঘাটা গ্রামের হাফিজুল ইসলাম, তার ভাই মফিজুল ইসলাম, রবিউল ইসলাম, আত্মীয় আমিনুল, জিয়াউল ইসলাম, ইসমাইল ও ভ্যান চালক কবিরুল।

[৪] সাতক্ষীরা অতিরিক্ত পুলিশ (সদর সার্কেল) মীর্জা সালাহ উদ্দীন জানান, নগরঘাটা গ্রামের হাফিজুল ইসলাম তার ব্যবসায়িক কাজের জন্য এক বিজিবি সদস্যের কাছ থেকে ৫৬ হাজার টাকা ধার নেন। ধারের এই টাকা পরিশোধ না করে তিনিসহ তার ভাই মফিজুল, রবিউল, আত্মীয় আমিনুল, জিয়াউল ও ইসমাইল সোমবার রাত ১০টার দিকে খুলনা-সাতক্ষীরা মহাসড়কের গোপীনাথপুর এলাকার ঋশিল্পীর সামনে থেকে মাইক্রোবাসযোগে একদল অপহরনকারী অস্ত্রের মুখে ভ্যান চালক কবিরুলের ভ্যান থেকে হাফিজুলকে গরুর বিক্রির এক লাখ টাকাসহ অপহরন করা হয়েছে মর্মে প্রচার দেন। বিষয়টি মোবাইল ফোনে সদর থানা পুলিশকেও জানানো হয়। এক পর্যায়ে ভ্যানচালক কবিরুলসহ কয়েকজন সদর থানায় মামলা দিতে গেলে তাদের কাছে জিজ্ঞাসাবাদে এক জনের সাথে আর এক জনের কথাবার্তা মিল না থাকায় পুলিশের সন্দেহ হয়। পরে পুলিশ ভ্যানচালক কবিরুলকে নিয়ে আলাদাভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি পুলিশের কাছে এটি যে সাজানো নাটক তা স্বীকার করেন। এরপর পুলিশ অভিযান চালিয়ে এ অপহরন নাটকের মুলহোতা হাফিজুলকে তার শ^শুর বাড়ি সদর উপজেলার আগরদাড়ি ইউয়িনের বাশঘাটা গ্রাম থেকে আটক করেন। তিনি আরো জানান, গতকাল রাত থেকে মঙ্গলবার বিকাল পর্যন্ত জেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে উক্ত ৭ জনকে আটক করা হয়। আটককৃতদের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলঅ দায়ের করা হয়েছে বলে এই পুলিশ কর্মকর্তা জানান।

 

সর্বাধিক পঠিত