প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ত্রিপুরা-মিজোরাম সীমান্ত থেকে বিপুল অস্ত্র আটক

ডেস্ক রিপোর্ট: বাংলাদেশের সঙ্গে থাকা ভারতীয় রাজ্য ত্রিপুরা-মিজোরামের আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে বড় ধরনের অবৈধ অস্ত্রের চালান জব্দ করেছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ। এটিকে বলা হচ্ছে, দেশটির উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলে এ বছরের সবথেকে বড় অস্ত্রের চালান জব্দের ঘটনা। এর সঙ্গে যুক্ত তিনজনকেও গ্রেপ্তার করেছে বিএসএফ। এ খবর দিয়েছে এনডিটিভি।

মঙ্গলবার প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বিএসএফ জানিয়েছে, গ্রেপ্তারকৃত তিনজন আন্তর্জাতিক অস্ত্র চোরাচালানকারীদের সঙ্গে যুক্ত বলে ধারণা করা হচ্ছে। ভারতের গোয়েন্দাদের থেকে পাওয়া তথ্যের ওপর ভিত্তি করে মিজোরামের ফুলদুংসেই গ্রামে অভিযান চালায় বিএসএফ। এটি বাংলাদেশ-ভারত আন্তর্জাতিক সীমান্ত থেকে মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত। গ্রামটি ত্রিপুরা-মিজোরাম সীমান্তে অবস্থিত এবং এটি ত্রিপুরা রাজ্যের সর্বশেষ গ্রাম। চোরাচালানের তথ্য পেয়ে সেখানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে বিএসএফ।

বাহিনীটির সদস্যরা সেখানে ফাঁদ ফেলে দু’টি অস্ত্রবাহী যান আটক করে। দু’টিতেই মিজোরামের নম্বর প্লেট রয়েছে।

বিবৃতিতে বিএসএফ জানিয়েছে, তল্লাশি চালিয়ে যান দু’টি থেকে ৩০টি আধুনিক অস্ত্র উদ্ধার করে। এরমধ্যে রয়েছে, একে সিরিজের ২৮টি অস্ত্র। এছাড়া, পাওয়া গেছে একটি ৫.৫৬ গুলির একে-৭৪ এবং একটি কারবাইন। সঙ্গে ছিল ৭ হাজার ৮৯৪টি গুলিও। এছাড়া ৩৯ হাজার রুপি ও কিছু নথিও উদ্ধার করা হয়েছে সেখান থেকে। গ্রেপ্তার হওয়া তিন ব্যক্তির নাম লালহুয়াপজাউভা, ভানলালরুয়াতা এবং লিয়াংসাঙ্গা। তারা সকলেই মিজোরামের রাজধানী আইজলের বাসিন্দা।

উল্লেখ্য, গত মাসে ত্রিপুরার সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার রাজ্যটির বর্তমান বিজেপি সরকারকে এই অঞ্চলের সন্ত্রাসবাদী কর্মকাণ্ড নিয়ে সাবধান করেন। বলেন, বিচ্ছিন্নতাবাদীরা আবারো সংগঠিত হওয়ার চেষ্টা করছে। তিনি এও জানিয়েছিলেন, সাবেক কিছু বিদ্রোহী নেতা মিজোরামকে ব্যবহার করে সংগঠিত হচ্ছে।মানবজমিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত