প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ইয়েমেন, দক্ষিণ সুদান, কঙ্গো ও নাইজেরিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলে দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে: জাতিসংঘ

সিরাজুল ইসলাম: [২] জাতিসংঘের মানবকল্যাণ বিষয়ক শীর্ষ কর্মকর্তা মার্ক লোকক এক চিঠিতে এই সতর্কবার্তা দিয়েছেন। নিউইয়র্ক টাইমস

[৩] জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে পাঠানো চিঠিতে বলা হয়, প্রাকৃতিক দুর্যোগ, বিধ্বস্ত অর্থনীতি এবং জনস্বাস্থ্যের চরম সংকটের কারণে ওই সব অঞ্চল দুর্ভিক্ষ শুরু হওয়ার তীব্র ঝুঁকিতে পড়েছে। কোভিড-১৯ মহামারী সংকটের তীব্রতা বাড়িয়ে দিয়েছে। লাখ লাখ নারী, পুরুষ ও শিশুর জীবন বিপন্ন।

[৪] শুক্রবার এটি সরাসরি নিরাপত্তা পরিষদে পাঠানো হয়। চিঠিটিরই একটি অনুলিপি পেয়েছে দ্য নিউ ইয়র্ক টাইমস।

[৫] এতে বলা হয়, ওই চারটি অঞ্চলে মারাত্মক খাদ্য সংকট চলছে। যুদ্ধ ও সংঘাত চলতে থাকা স্বাধীনভাবে মানবিক ত্রাণ বিতরণও সম্ভব হয় না। এপ্রিলে বিশ্ব খাদ্য কমূসূচীর নির্বাহী পরিচালক ডেভিড বিইসলি বলেছিলেন, বিশ্ব করোনাভাইরাস মহামারীর বিরুদ্ধে লড়াই করছে। আমরা আরও একটি ক্ষুধা (দুর্ভিক্ষ) মহামারীর দ্বারপ্রান্তে আছি।

[৬] দুই বছর আগে ইয়েমেনে দুর্ভিক্ষ দেখা দিয়েছিলো; যেটাকে প্রতিহত করা হয়েছে। আরব বিশ্বের সবচেয়ে গরিব দেশ এটি। পাঁচ বছরের বেশি সময় ধরে সেখানে গৃহযুদ্ধ চলছে। অর্থনীতি বলতে গেলে প্রায় সম্পূর্ণ রূপে (৮০ শতাংশ) বিদেশি ত্রাণের উপর নির্ভরশীল। দুর্ভিক্ষ থেকে এক পা দূরে রয়েছে।

[৭] কঙ্গোর পূর্বাঞ্চলের প্রায় দুই কোটি ১০ লাখ মানুষ ‘খাদ্য নিরাপত্তাহীনতার সংকটময় বা চরম সংকটময় অবস্থায়। নাইজেরিয়ার উত্তরপূর্বাঞ্চলে অস্ত্রধারী জঙ্গি বাহিনী অত্যন্ত সক্রিয়। সেখানে প্রায়ই হামলার ঘটনা ঘটে। এক কোটি বাসিন্দার প্রতি পাঁচজনে চারজনেরই মানবিক সহায়তা এবং সুরক্ষা প্রয়োজন।

[৮] দক্ষিণ সুদানে প্রায় সাত বছর ধরে গৃহযুদ্ধ চলেছে। সংঘাত বাড়তে থাকায় ১৪ লাখের বেশি মানুষের জীবন ঝুঁকিতে পড়েছে। পরিস্থিতি দ্রুত খারাপ হচ্ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত