প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ৩ দিন পর অপহৃত শিশু উদ্ধার, অপহরণকারী গ্রেপ্তার

সুজন কৈরী : [২] অপহরণের তিন দিন পর রাজধানীর যাত্রবাড়ী এলাকা থেকে ৯ বছর বয়সী অপহৃত শিশুকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব। সেইসেঙ্গ গ্রেপ্তার করা হয়েছে অপহরণকারীকেও।

[৩] শুক্রবার দুপুরে যাত্রাবাড়ীর আইডিয়াল স্কুলের গলি এলাকায় অভিযান চালিয়ে মো. ওয়াসিম (৩২) নামের ওই অপহরণকারীকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব-১১। পরে তার ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে হাত-পা বাধা অবস্থায় ভুক্তভোগী শিশুকন্যাকে উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তার ওয়াসিম ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরের চতরংখলা এলাকার ফজলুল হকের ছেলে।

[৪] র‌্যাব-১১ এর অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. জসিম উদ্দীন চৌধুরী বলেন, বুধবার শিশুকন্যার মা রোজিনা বেগম (২৮) ব্যাটালিয়নে একটি অভিযোগ করেন। সেখানে তিনি উল্লেখ করেন, ১ সেপ্টেম্বর এক ব্যক্তি নারায়ণগঞ্জের বন্দরের মদনপুর এলাকায় তাদের ভাড়া বাড়ির সামনে থেকে তার ৯ বছর বয়সী শিশুকন্যাকে অপহরণ করে। পরে মোবাইল ফোনে অপহরণকারী মেয়েকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে মোটা অঙ্কের মুক্তিপণ দাবি করে। ওই অভিযোগের প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১ গোয়েন্দা নজরদারী ও গোপন অনুসন্ধান শুরু করে। এরই ধারাবাহিকতায় শুক্রবার দুপুরে যাত্রাবাড়ী এলাকায় অভিযান চালিয়ে অপহরণকারী ওয়াসিমকে গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধার করা হয় শিশুকন্যাকেও।

[৫] র‌্যাবের এ কর্মকর্তা আরও বলেন, ভুক্তভোগী শিশুর মা রোজিনা কারখানা শ্রমিক। তার কর্মস্থলে আসা যাওয়ার পথে ২ মাস আগে ওয়াসিমের সঙ্গে পরিচয় হয়। এর সূত্র ধরে ওয়াসিম কৌশলে রোজিনার ভাড়া বাসা চিনে রাখে। পরে রোজিনা নাইট ডিউটিতে থাকা অবস্থায় ফাঁকা বাসার সুযোগে ১ সেপ্টেম্বর সকাল ৭ টায় ওয়াসিম রোজীনার শিশুকন্যাকে অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং তার ভাড়া বাসায় জিম্মি করে রাখে। সে শিশুটির হাত-পা বেঁধে নির্যাতন করে, ছবি তুলে শিশুটির মায়ের মোবাইলে পাঠিয়ে ৩ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবি করে।

[৬] অভিযানকালে উপস্থিত সাক্ষীদের সামনে জিজ্ঞাসাবাদে ওয়াসিম ভুক্তভোগী শিশুকে অপহরণ করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা এবং আটকে রেখে ৩দিন ধরে যৌন নির্যাতন করার কথা স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাব কর্মকর্তা জসিম উদ্দীন চৌধুরী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত