প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] গোপালগঞ্জে ধৃত চোর ছিনতাই ও লুটপাট

সাবেত আহমেদ, গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: [২] গোপালগঞ্জে একটি ডিসট্রিবিউশন হাউজ থেকে ধৃত দুই চোরকে ছিনিয়ে নেয়া, লুটপাট, ভাংচুর ও মারপিটের ঘটনা ঘটেছে। এক চোরকে পুলিশে সোপর্দ করা হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে গোপালগঞ্জ শহরতলীর হরিদাসপুর এলাকার কোকাকোলা ডিসট্রিউশন হাউজে।

[৩] ডিসট্রিউবিশন হাউজের সত্বাধিকারী তানভির হোসেন জানান, আমাদের হাউজের পিছনে একটি হাঁসের খামার রয়েছে। রোববার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে ওই খামার থেকে ৩ চোর হাঁস চুরি করার সময় মাঠে গরু চরাতে যাওয়া মোশারফ শেখ দেখে ফেলেন। তখন তিনি শোর চিৎকার দিলে আমরা গিয়ে পিয়াল শেখ নামের এক চোরকে ধরে ফেলি। বাকী দুইজন লাবু শেখ ও রাব্বি শেখ পালিয়ে যাওয়ার সময় হরিদাসপুর ব্রীজের পাশে বাড়ির লোকজন পাকড়াও করে। ওই দুই চোরকে ডিসট্রিউবিশন হাউজের নিয়ে আসছিল। পথিমধ্যে তাদের আত্মীয় নয়ন, শাহিদুল, কবির ও আলমসহ বেশ কয়েকজন হামলা চালিয়ে লাবু ও রাব্বিকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

[৪] তার কিছুক্ষণ পর চোরদের বংশিয় ১৫/২০ জন আমাদের ডিসট্রিউবিশন হাউজে ঢুকে আমার বড় ভাই লুৎফর রহমানকে বেধড়ক মারপিট করে। এসময় হামলাকারীরা ক্যাশে থাকা প্রায় ১লক্ষ ২০ হাজার টাকা নিয়ে যায়। এছাড়াও একটি মোটরসাইকেল ও মালামাল ভাংচুর করে। তবে ধৃত চোর পিয়ালকে ছিনিয়ে নিতে ব্যর্থ হয়। পিয়ালকে আমরা পুলিশে সোপর্দ করেছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে। হামলা ও মারপিটের পুরো ঘটনা সিসিটিভি ফুটেজে রেকর্ড আছে বলেও জানান তিনি।

[৫] ধৃত পিয়াল হরিদাসপুর পূর্বপাড়া গ্রামের হিরু শেখ, লাবু একই গ্রামের মুরাদ শেখ ও রাব্বি তোরাব শেখের ছেলে।

[৬] গোপালগঞ্জ সদর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মনিরুল ইসলাম জানান, একজন হাঁস চোরকে ধরে তারা পুলিশে সোপর্দ করেছে। ছিনতাই, হামলা ও ভাংচুরের বিষয় আমাকে জানায়নি। তবে অভিযোগ পেলে মামলা নেবো।

সর্বাধিক পঠিত