প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাজেটে কৃষিখাতকে গুরুত্ব দেয়া হয়নি [২] অন-লাইন বেচাকেনা, মোবাইল ও ইন্টারনেট সেবায় কর বাড়ানো সঠিক হবে না: বিএনপি

শাহানুজ্জামান টিটু: [৩] দলটি বলছে, বাজেটে হাতে তৈরি খাবার, গুড়ো দুধ, অন-লাইন খাবার, অন-লাইন কেনাকাটা, মোবাইল ও ইন্টারনেট সেবা খরচ বাড়ানোর প্রস্তাব করা হয়েছে। মোবাইল সেবার ওপর কর প্রায় প্রতিবছরই বাড়ছে। করোনা সংকটকালে অবরোধ অবস্থায় আমরা দেখছি এ সব সেবা কত প্রয়োজনীয়। এ সময় আমরা অনলাইন কেনাকাটা ও মোবাইল /ইন্টারনেট সেবার বর্তমান ব্যয় বহাল রাখা উচিত।

[৪] শুক্রবার উত্তরার নিজ বাসভবন থেকে সংবাদ সম্মেলনে এ বিএনপি মহাসচিব বলেন, কৃষকদের উৎপাদনের উপকরণ– বীজ, সার ইত্যাদির মূল্য হ্রাসের তেমন কিছুই বলা হয়নি বরঞ্চ রাসায়নিক সারের মুল্য গত বছরের মূল্যই বহাল রাখা হয়েছে। কৃষকদের উৎপাদিত পণ্যের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করাসহ কৃষিখাতকে যথাযথ গুরুত্বের সাথে মূল্যায়ন করা হয়নি। ক্ষুদ্র মাঝারি ও কুটির শিল্পে প্রায় আড়াই কোটি মানুষ সম্পৃক্ত। এ খাতও যথাযথ গুরুত্ব পায়নি।

[৫] ব্যাংকে আমানত কমে যাচ্ছে। অর্থমন্ত্রী প্রস্তাব করেছেন, ব্যাংকে ১০ লক্ষ টাকার উপরে রাখলেই ৩,০০০ টাকা কর দিতে হবে। এক কোটি টাকার উপরে থাকলে ১৫,০০০ টাকা ট্যাক্স দিতে হবে। এতে আমানত ক্ষতিগ্রস্ত হবে, কারণ আমানত কারীরা নিরুৎসাহিত হবে।

[৬] তিনি বলেন, কর্মসংস্থান কারিগরি শিক্ষা খাতে আরো গুরুত্ব দেয়া দরকার ছিল। শস্য বীমার কথা দীর্ঘদিন থেকে বলা হচ্ছে। এ বাজেটে অন্তত বলা উচিত ছিল তারা এ ব্যাপারে কি করবেন।

[৭] বিএনপি মহাসচিব বলেন, বাজেটে স্বর্ণ আমদানিতে ঠঅঞ অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এতে স্বর্ণের দাম কমবে। স্বর্ণের দাম হ্রাসের এ প্রস্তাবে জুয়েলারি দোকানের লবি এবং বিত্তবানরাই লাভবান হবে। সাধারণ মানুষ এবং মধ্যবিত্তদের মধ্যে যারা সংকটকালে স্বংনালংকার বিক্রি করে দিতে বাধ্য হবেন তারা ক্ষতিগ্রস্থ হবেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত