প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডা. ফেরদৌসকে নিয়ে চমকপ্রদ তথ্য দিলেন আমেনা কোহিনূর

ডেস্ক রিপোর্ট : কবি অসীম সাহা, ড. ফেরদৌস খন্দকার (নিউইয়র্ক), আল আমিন বাবু ভাই (নিউইয়র্ক), ইমরান আলী, শেখ শহীদ ভাই-সহ আমরা কিছুদিন আগে দুর্নীতিবিরোধী কাজ করেছিলাম। তখন থেকে ওনাকে চিনি একজন জনহিতকর ও সমাজহিতৈষী হিসেবে। তারপর করোনাকালীন সময়ে উনি নিউইয়র্কে অনেক কাজ করেছেন।

প্রবাসী বাংলাদেশিদের পাশে দাঁড়িয়েছেন, ফেসবুকের সুবাদে এটা জেনেছি। কিন্তু হঠাৎ করে কবি জাফর ওয়াজেদ ভাইয়ের পোস্টে উনি বঙ্গবন্ধুর খুনি ঘৃণিত খন্দকার মোশতাক বা কর্নেল রশিদের আত্মীয় এবং ছাত্রদল করতেন, এটা শোনার পর সত্যি ভড়কে গিয়েছিলাম।

কারণ জাফর ওয়াজেদ ভাই ফালতু কথা বলেন না। আবার অনেক শিবির, ছাত্রদল করা অনেক লোকজন এখন আমাদের ভেতরে, তারা আমাদের ভেতরে থেকেই বিভিন্ন রকমের সুবিধা নিচ্ছে, আবার ষড়যন্ত্রেও লিপ্ত। বিভিন্ন ব্যক্তি ও গোষ্ঠীস্বার্থে কে যে কখন কাকে জামায়াত-শিবির, বিএনপি ট্যাগ দিয়ে দেয়, বুঝা মুশকিল।

আসলে ফেরদৌস খন্দকার দুঃসময়ে চমেক ছাত্রলীগের নেতা ছিলেন এবং মোশতাক নামে তার একজন মামা আছেন, যিনি বোস্টনে থাকেন। বাড়ি কুমিল্লা। সব কিছু মিলিয়ে যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের দুই গ্রুপের খেয়োখেয়ি যার সিন্ডিকেট বাংলাদেশ পর্যন্ত বিস্তৃত, তাকে বিতর্কিত করার চেষ্টা। বাঙালির পরশ্রীকাতরতা।

এই শব্দের কোনো ইংরেজি কিন্তু ডিকশিনারিতে নেই। তার মানে পরশ্রীকাতরতা বিষয়টি শুধু বাঙালির মধ্যেই আছে। আমরা আশা করি খুব শিগগিরই ফেরদৌস খন্দকার আমাদের মাঝে ফিরে আসবেন এবং তার মানবিক, জনহিতৈষী কাজগুলো শুরু করবেন।

সর্বাধিক পঠিত