প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] মিনিয়াপোলিস পুলিশ বিভাগ ভেঙে দেবার পক্ষে সিটি কাউন্সিলের বেশিরভাগ সদস্য

আসিফুজ্জামান পৃথিল : [২] ১৩ সদস্যের ৯ জনই বলছেন জননিরাপত্তার নতুন মডেল তৈরি করা জরুরি। এতো শহরটির নতুন পুলিশ বিভাগ বর্ণবাদের অভিযোগ থেকে মুক্তি পেতে পারবে। সিএনএন, বিবিসি, দ্য গার্ডিয়ান

[৩] এর আগের দিনই মেয়র জ্যাকব ফ্রে এই প্রস্তাবে রাজি না হয়ে বিক্ষোভকারীদের ব্যাপক বিদ্রুপের শিকার হন।

[৪] বিক্ষোভকারীরা এই সিদ্ধান্তে সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও বিক্ষোভকারীরা বলছেন, এই ঘটনায় নগরীটির পুলিশ বিভাগকে নিয়ে দির্ঘদিন বিতর্ক থাকবে।

[৫] মিনিয়াপোলিসে পুলিশি নির্যাতনে ২৫ মে জর্জ ফ্লয়েড নামে এক কৃষ্ণাঙ্গ খুন হলে যুক্তরাষ্ট্রজুড়েই বর্ণকাদ ও পুলিশের বর্বরতার বিরুদ্ধে আন্দোলন শুরু হয়।

[৬] রোববার বিক্ষোভকারীদের উদ্দেশ্যে এক যৌথ বিবৃতি দেন ৯ কাউন্সিলর। কাউন্সিল প্রেসিডেন্ট লিসা বেন্ডার সেই বিবৃতিতে বলেন, ‘আজ স্পষ্ট করে বলা যায়, বর্তমান পুলিশি ব্যবস্থা আমাদের সম্প্রদায়কে নিরাপদ রাখতে পারছে না। আমাদের এতে সংস্কার আনতেই হবে। কিন্তু এর আগে এই বিভাগকে বিলুপ্ত করা বা ভেঙে দেয়া জরুরী।’ সম্পাদনা : ইকবাল খান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত