প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] করোনায় পোশাক শ্রমিকদের ছাঁটাইয়ের সিদ্ধান্ত আইনের পরিপন্থী : আইনজ্ঞদের অভিমত 

নূর মোহাম্মদ : [২]  করোনায় ভোক্তাদের চাহিদা কমে যাওয়ার কথা বলে চলতি মাস থেকেই পোশাক শ্রমিকদের ছাঁটাই শুরু হবে বলে জানিয়েছেন বিজিএমইএ সভাপতি রুবানা হক। তবে আইনের বাইরে কোন কিছু করা ঠিক হবেনা বলে জানিয়েছেন আইনজ্ঞরা।
[৩] সুপ্রিম কোর্টের জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খুরশিদ আলম খান বলেন, শ্রমিক ছাঁটাইয়ে রুবানা হকের বক্তব্য অত্যন্ত আপত্তিকর ও নিন্দনীয়। সরকার তার প্রজ্ঞা দিয়ে চেষ্টা করছে অর্থনীতির চাকা সচল রাখতে, তাদের প্রণোদনা দিয়ে টিকিয়ে রাখতে। এই পরিস্থিতিতে রুবানা হকের বক্তব্য সরকারের সিদ্ধান্তের বিপরীতে বলে মনে হয়।
[৪] তিনি বলেন, গার্মেন্টস মালিকদের ফুলে-ফেপে বড় হওয়ার পেছনে শ্রমিকদের অবদান। ছাঁটাই করতে হলে অসদাচরণের যথেষ্ঠ অভিযোগ থাকতে হবে। শ্রম আইন ও শ্রমবিধির তোয়াক্কা না করে এ ধরনের বক্তব্য বোধগম্য নয়। আমাদের দেশে আইন রয়েছে। আইনের বাইরে কোন কিছু করা সম্ভব নয়।
[৫] সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মোতাহার হোসেন সাজু বলেন, বিশাল অঙ্কের প্রণোদনা সত্ত্বেও মালিকরা কেবল নিজেদের স্বার্থ দেখছেন। অথচ দীর্ঘদিন শ্রমিকদের ওপর ভর করেই হাজার হাজার কোটি টাকার মালিক হয়েছেন। বর্তমান পরিস্থিতিতে রুবানা হকের বক্তব্যে জাতি স্তম্ভিত।
তিনি বলেন, কারো বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগ থাকলে বরখাস্ত করা যাবে। শ্রম আইনের ২০ ধারায় বলা হয়েছে, যাদের চাকরির মেয়াদ এক বছরের বেশি, তাদের বরখাস্ত করার ক্ষেত্রে প্রতি বছরের জন্য, ৩০ দিনের বেসিক পরিশোধ করতে হবে। আনিসুল হককে নিয়ে মানুষ গর্ব করে। তাই রুবানা হকের কাছেও প্রত্যাশা, কোন শ্রমিক যাতে চাকরিচ্যুত না হয়।
[৬] ব্যারিস্টার আব্দুল্লাহ মাহমুদ বাশার বলেন, সংবিধানের ১৪ অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে রাষ্ট্রের অন্যতম মৌলিক দায়িত্ব হবে শ্রমিকদের শোষণ থেকে মুক্তি দেয়া। শ্রম অাইনের ১২ (১) ধারায় বলা অাছে, মহামারি হলে কারখানা বন্ধ রাখতে হবে। ১২ (৮) ধারায় বলা হয়েছে, ৩ দিনের বেশি সময় বন্ধ থাকলে বেতনসহ অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা অর্ধেক পাবেন। ১৬ ধারায় লে-অফ ঘোষণার কথা বলা আছে।
[৭] তিনি বলেন, কোন শ্রমিক বঞ্চিত হলে শ্রম আদালতে যেতে পারবে।  আর আইন অনুযায়ী শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করার দায়িত্ব কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের। তবে মালিকদের মনে রাখতে হবে, শ্রমিকদের ঘামে তাদের স্বাচ্ছন্দ। তাই শ্রমিকদের অধিকার নিশ্চিত করতে হবে বলে জানান তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত