প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পথেই মৃত্যু মৌসুমী শ্রমিকের, করোনার ভয়ে রাস্তায় দেহ ফেলে পালালো পরিবার

ইয়াসিন আরাফাত : [২] শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশের প্রয়াগরাজে। কয়েকদিন আগেই মুম্বই থেকে প্রয়াগরাজে গ্রামের বাড়িতে ফেরেন বছর ৩৫-এর ওই মৌসুমী শ্রমিক। শনিবার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে, তাকে প্রয়াগরাজের এসআরএন হাসপাতালে নিয়ে যান পরিবারের সদস্যরা। হাসপাতাল থেকে ফেরার পথেই মৃত্যু হয় ওই শ্রমিকের। কিন্তু করোনার ভয়ে রাস্তাতেই দেহ ফেলে পালান পরিবারের লোকজন। এই সময়, আজকাল, ইন্ডিয়া টুডে

[৩] শনিবার সকাল এগারোটা নাগাদ প্রয়াগরাজের রানিগঞ্জ থানা এলাকার দামদাম গ্রামের রাস্তায় দেহটি পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ও স্বাস্থ্যকর্মীরা ছুটে আসেন। দেহ শনাক্ত করে মৃতের পরিবারের খোঁজ পায় পুলিশ। কিন্তু সেই পরিবারকে শেষকৃত্যের জন্য রাজি করাতে খুব কষ্ট হয় পুলিশ কর্মীদের।

[৪] রানিগঞ্জের ডেপুটি পুলিশ সুপার অতুল অঞ্জন ত্রিপাঠী জানিয়েছেন, ‘দিন চারেক আগে গ্রামে ফেরেন ওই মৌসুমী শ্রমিক। থার্মাল স্ক্রিনিং ও স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তাকে ২১ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেয়া হয়। হাসপাতাল থেকে ফেরার পথেই মৃ্ত্যু হয় তার। কিন্তু করোনার ভয়ে রাস্তাতেই দেহ ফেলে পালান পরিবারের লোকজন। তার দীর্ঘদিন শ্বাসকষ্ট ও হৃদযন্ত্রে সমস্যা ছিল।’

[৫] স্বাস্থ্যকর্মীরা জানান, করোনার কারণে ওই পরিযায়ী শ্রমিকের মৃত্যু হয়নি। পুলিশ ও স্বাস্থ্যকর্মীদের অনেক বোঝানোর পর শেষকৃত্যে রাজি হন পরিবারের লোকজন। শেষমেষ রোববার পিপিই পরে মৃত পরিযায়ী শ্রমিকের শেষকৃত্য সম্পন্ন করেন তারা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ