প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] লক্ষ্মীপুরে ব্যবসায়ীর জমি জবর দখলের চেষ্টা, ভাংচুর ও লুটপাটের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : [২] লক্ষ্মীপুরে জোর পূর্বক জমি জবর দখলের চেষ্টা চালিয়েছে প্রতিপক্ষের লোকজন। এসময় বসত ঘর ভাংচুর ও মালামাল লুট করার অভিযোগ উঠেছে। বাধা দেয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ুয়া শিক্ষার্থী সহ মা-মেয়েকে মারধর করেছে প্রতিপক্ষরা।

[৩] ২৮ মে বৃহস্পতিবার ভুক্তভোগী ব্যবসায়ী মোঃ মোস্তফা কামাল গণমাধ্যমে এসব অভিযোগ করেন। এর আগে গত ১৫ মে লক্ষ্মীপুর পৌরসভাধীন দক্ষিণ মজুপুর গ্রামের জিন্নত আলী পাটওয়ারী বাড়ীতে এ ঘটনা ঘটে।

[৪] ভুক্তভোগী পরিবার ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ৭৬নং মজুপুর মৌজার সি/এস ৭৯ ও ৮০ খতিয়ানে ৯১৪ দাগের ১৪.৭৫ শতকের মধ্যে ৮ শতক বসতবাড়ী, ৫ শতাংশ বাগান ও ১.৭৫ শতক পুকুর ব্যবসায়ী মোঃ মোস্তফা কামাল মালিক হিসেবে ভোগ দখল করে আসছেন। কিন্তু প্রতিপক্ষ জান্নাতুল ফেরদাউস গংরা গত ২২ এপ্রিল ব্যবসায়ী মোস্তফার ২০/২৫ বছর পূর্বে নির্মিত ৬৫ ফুট গাইড ওয়াল ভেঙ্গে ফেলেন। এনিয়ে লক্ষ্মীপুর মেয়র বরাবরে অভিযোগ দায়ের করা হয়। অভিযোগ দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে গত ১৪ মে আরিফ, মিশন, সিরাজ, বাহার উদ্দিন, খসরু, সবুজ, আবু তাহের মাষ্টার, জান্নাতুল ফেরদাউস, মোখলেছুর রহমান সহ অজ্ঞাত নামীয় ৭/৮জন ব্যবসায়ী মোস্তফার দেয়াল ভাঙ্গা ৬৫ ফুট জায়গায় (পুকুর ঘাটসহ) তারকাটার বেড়া দেয়া শুরু করে। পরের দিন ১৫ মে ভোর সাড়ে ৫টার দিকে উল্লেখিত বিবাদীরা দলবদ্ধ হয়ে তার বসত ঘরে হামলা ও ভাংচুর চালায়। নিরুপায় হয়ে ব্যবসায়ী মোস্তফা ৯৯৯ এ কল করেন। ৯৯৯ এর কল পেয়ে লক্ষ্মীপুর সদর থানার এএসআই মোঃ হেলাল ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি উভয় পক্ষের কাজ বন্ধ রেখে বৈঠকে বসে বিষয়টির সুরাহার নির্দেশ দেন।

[৫] মোস্তফা বলেন, বিবাদীরা আমাকে ও আমার পরিবারকে নানানভাবে হয়রানি ও ক্ষতিগ্রস্ত করার হুমকি ধমকি প্রদর্শন করেই চলেছে। তারা যেকোন সময় আবারও আমাদের উপর হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত করার আশংকা বিদ্যমান। তাদের ভয়ে আমরা চরম নিরাপত্তাহীনতায় আতঙ্কগ্রস্ত দিন যাপন করছি।

[৬] এবিষয়ে জানতে প্রতিপক্ষ ছাত্রদল নেতা নিশান বলেন, আমাদের জমি তারা দখল করে রেখেছে। মহামান্য হাইকোর্ট ওই স্থানে স্থায়ী নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তারপরও তারা ঘর নির্মাণের কাজ চালাচ্ছে। কোনো প্রকার লুটপাট হয়নি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত