প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সুঁই-সুতা কাহিনি

আফসান চৌধুরী : আজকাল কেউ বাসায় সুই-সুতা রাখে না। কারণ কাপড় ছিঁড়লে বোধহয় ফেলে দেয়। আমি অবশ্য স্ট্যাপলার মেরে চলি যতোদিন পারি, ছোটবেলার শিক্ষা। সুইয়ের ভেতর সুতা ঢোকানো কঠিন কাজ।

 

চোখ লাগে, হাত লাগে, ইচ্ছা লাগে.. সুতা টাকে সুক্ষ করতে হয় নানা তরিকায়। এই কাজে যারা সেলাই করে না তাদের অনেক আগ্রহ।একবার আমার মা তার মাকে, মানে আমার নানীকে কিছু একটা সেলাই করতে দিয়ে রান্না ঘরে গেছেন। নানীর একটু বয়স হয়েছে, তাই আমার এক ভাইকে সুতাটা ঢোকাতে বললো।

 

ঢোকাতে ঢোকাতে বড় ভাই হাজির, সে নতুন করে ঢোকালো। তখন আমি জিদ ধরলাম, আবার খুলে ঢোকানো হলো। তারপর ছোট মামা- ফকু মামা - বললো সে নতুন পদ্ধতি দেখাবে, তাই নিয়ে তর্ক শুরু হয়ে গেলো। এর মধ্যে মা এসে জিজ্ঞাসা করলো, ‘কী মা হলো?’ নানী বললো, আগে তোর ছেলেরা সুই ঢোকানো শেষ করুক, তারপর...! ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত