প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আন্তর্জাতিক বিমান চলাচল ২০২৩ সালের আগে স্বাভাবিক হবে না

রাশিদ রিয়াজ : [২] ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট এ্যাসোসিয়েশন বলছে ইউরোপ, যুক্তরাষ্ট্র বিমান চলাচলের ৯০ শতাংশ এখনে বন্ধ রয়েছে। যদি লকডাউন দ্রুত তুলে নেয়া হয় আশঙ্কা করা হচ্ছে বিমান যাত্রী পাওয়া আরো কঠিন হয়ে পড়বে। আরটি
[৩] এ্যাসোসিয়েশনের সিইও আলেকজান্ডার ডি জুনায়েক সিএনবিসিকে বলেছেন বিভিন্ন দেশের সরকারকে কয়েক ধাপে লকডাউন প্রত্যাহার করে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরে আসলে বিমান চলাচল শুরু করতে। এভাবে অন্তত কিছু বিমান চলাচল আগামী গ্রীষ্ম নাগাদ চালু করা যাবে। আরটি

[৪] আগামী দ্বিতীয় প্রান্তিকের শেষ নাগাদ বা জুলাইয়ের প্রথমদিকে অন্তত অভ্যন্তরীণ ফ্লাইটগুলো বিভিন্ন দেশে পুনরায় চালু করা সম্ভব হবে।

[৫] এরপর আঞ্চলিক বিমান এবং তারপর মহাদেশগুলোর মধ্যে বিমান চলাচল শুরু হতে তৃতীয় প্রান্তিক লেগে যাবে। ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা কিংবা এশিয়া প্যাসিফিকে বিমান চলাচল শুরুর আশা করছে এ্যাসোসিয়েশন।

[৬] এ্যাসোসিয়েশনের সিইও বলেন বিভিন্ন দেশের সরকারের সঙ্গে আমরা আন্তর্জাতিক বিমান চলাচলের ক্ষেত্রে যাত্রীদের জন্যে বিশেষ স্বাস্থ্য নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা হিসেবে নেয়া গৃহীত পদক্ষেপ নিয়ে আলোচনা করছি। বিশেষ করে টিকিটের মূল্য, বিমান চলাচল নিয়ন্ত্রণে পরিস্থিতি কি দাঁড়াতে পারে সে নিয়েও কথা হচ্ছে।

[৭] অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, চীন, স্পেন, ব্রিটেন বিমান যাত্রীদের ভ্রমণের পর দুই সপ্তাহের কোয়ারেন্টাইন বাধ্যতামূলক করার জন্যে চাপ দিচ্ছে। হংকং বিমান ভ্রমণ শেষে ব্যক্তিদের বাধ্যতামূলক সুনির্দিষ্ট দিনের জন্যে ব্রেসলেট পরিধানের ব্যবস্থা করেছে।
[৮] এছাড়া বিমানে ওঠার আগে যাত্রীদের পরিশোধন, প্যাকেটজাত খাবার, কেবিন লাগেজ সীমিত রাখার বিষয়টিও যুক্ত করছে বিভিন্ন এয়ারলাইন্স।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত