প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] গতবার মিস করাগুলো পূরণ করতে এবার রমজানের আগেই রোজা রাখা শুরু করেন জাহানারা

নিজস্ব প্রতিবেদক : [২] বছরের পুরো সময়জুড়ে ব্যস্ত থাকা ক্রীড়াবিদরা একেবারেই অলস সময় পার করছেন। এই করোনা দুর্যোগ থামিয়ে দিয়েছে সকল আয়োজন। তাই ঘরে বসে থাকার লড়াই করছেন তারা। ঘরে বসেই নানান কাজে সময় করছেন একেকজন। ঘরে থেকেই নিজের দিনযাপনের কথা জাতীয় নারী ক্রিকেট দলের অলরাউন্ডার জাহানারা আলম।

[৩] ইদানীং তার খুব আগের কথা মনে পড়ে। অনেক দিন আগের কথা, করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সময়ের ঠিক আগের কথাগুলোও। সকাল সকাল উঠেই রানিং, জিম করে বাসায় ফিরে নাস্তা। দুপুরে একটু বিশ্রাম, রাতে দ্রুতই ঘুমিয়ে পড়া। কিন্তু এখন সব কেমন যেন বাধাহীন। কোনো নিয়ম নেই। সব এলোমেলো। যখন যা ইচ্ছে করছি। কোনো কিছুরই রুটিন নেই আসলে। এরকম সময় আগে কখনো কাটেনি।

[৪] জাতীয় দৈনিকে নিজের লেখা কলামে জাহানারা বলেন, দুটি জিনিস অবশ্য নিয়ম করে করতে পারছি। এবার আগে থেকেই কিছু রোজা রেখেছি। গত বছর প্রিমিয়ার লিগ হয়েছিল রোজার সময়। তখন কিছু রোজা বাদ গেছে। সেগুলো রাখলাম এই ফাঁকে। এটা ঠিক মতো হচ্ছে। একদিন করে বিরতি দিয়ে সিঁড়িতে দৌড়াই। সিঁড়িতে তো যে কোনো সময় দৌড়ানো যায় না। বিল্ডিংয়ে আরও পরিবার থাকে। খুব ভোরে যখন সবাই ঘুমিয়ে, তখন সিঁড়িতে রানিং সেরে নেই। প্রথম আলো

[৫] আমি ঢাকায় একাই আছি। বিশ্বকাপ শেষে অস্ট্রেলিয়া থেকে দেশে ফেরার পরই করোনার প্রাদুর্ভাব শুরু। এরপর আর বাড়ি যাওয়ার সুযোগ হয়নি। ঢাকায় থাকলে নিজের খাবার নিজেই তৈরি করি। তবে রান্নার সময় অভুক্ত মানুষের কথাও মাথায় আসে। অনেকেই না খেয়ে আছেন। তাদের জন্য খারাপ লাগে।

/এ.জেড

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত