প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] পোপ ফ্রান্সিস বললেন, নিশ্চয়ই শহরগুলির নিঃস্তব্ধতায় পুনরুত্থানের সুসমাচার অনুরণিত হবে

ভিকটর কে. রোজারিও : [২] খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের পবিত্র ইস্টার সানডে আগামী রোববার। তার আগে পুণ্য সপ্তাহের শুরুতে দেয়া বাণীতে পোপ ফ্রান্সিস আরও বলেন, আমি অনুমান করতে পারি, বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া এ সংক্রামক ব্যাধিকে এড়িয়ে চলার জন্য তোমরা কী রকম কঠিন জীবন-যাপন করছো। আমি সেসব প্রাণোচ্ছল শিশুদের কথা ভাবছি, যারা বাইরে বেড়াতে পারছে না, স্কুলে যেতে পারছে না, নিজেদের মতো করে জীবন কাটাতে পারছে না।

[৩] আমার হৃদয় জুড়ে আছে সেই সমস্ত পরিবার, বিশেষ করে যাদের ভালোবাসার মানুষগুলো করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত। এ দিনগুলোতে আমি চিন্তা করছি, একান্ত নিঃসঙ্গ হয়ে এমন কঠিন অবস্থার সম্মুখিন হওয়া মানুষদের কথা। সর্বোপরি চিন্তা করি বয়স্কদের কথাও, যারা আমার একান্ত প্রিয়।

[৪] যারা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি, তাদের কথা ভুলতে পারছি না। যারা নিজেদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মহামারিতে আক্রান্ত রোগীদের এবং ওই রোগের সন্দেহভাজনদের প্রয়োজনীয় সেবার দায়িত্ব পালন করছেন, তাদের উদারতার বিষয়েও আমি ওয়াকিফহাল। যেসব মহানায়করা প্রতিদিন, প্রতিঘণ্টায় বীরত্ব দেখিয়ে চলেছেন।

[৫] যারা অর্থনৈতিক বিপদে পড়েছে, কর্মহীন হয়ে ভবিষ্যতের জন্য দুঃচিন্তায় পড়েছে, তাদের কথাও চিন্তা করছি। চিন্তা করছি তাদের কথা, যারা কারারুদ্ধ হয়ে আছে ও নিজের এবং পরিবারের জন্য দুঃশ্চিন্তাগ্রস্ত। তাদের কথাও ভাবছি, এ সময় যাদের থাকার ঘর নেই। এটা সবার জন্য একটা কঠিন সময়। এসো চেষ্টা করি, এ কঠিন সময়টাকে ভালোভাবে কাজে লাগাতে। আমরা আর একটু উদার হই, আমাদের প্রতিবেশীদের অভাবে তাদেরকে সাহায্য করি, নিঃসঙ্গ লোকদের দেখাশোনা করি।

[৬] যদিও আমরা তাদের থেকে বিচ্ছিন্ন, তবুও আমাদের মন ও আত্মা ভালোবাসার দ্বারা অনেক দূর যেতে পারে। ভালোবাসায় আমাদের উদ্বুদ্ধ হওয়া দরকার। ঈশ্বরের অসীম ভালোবাসায় আমরা অন্য এক উপায়ে পবিত্র সপ্তাহটি পালন করবো। যা খ্রিস্টের সুসমাচার প্রকাশ করবে। এটাই এই মহত্তর সময়ের আশা, যার দ্বারা আমরা অপেক্ষাকৃত ভালো থাকবো এবং শেষ পর্যন্ত এ মহামারি থেকে মুক্তি লাভ করবো। আর আশা মানুষকে কখনও হতাশ করে না।

[৭] পারস্পরিক সহনশীলতা ও ভালোবাসার মাধ্যমে আমরা আরও ভালো সময় কাটাতে পারি| সম্পাদনা : সালেহ্ বিপ্লব

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত