প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আল্লাহর নিকট অণু পরিমান খারাপ কাজের হিসেবও দিতে হবে!

ইসমাঈল আযহার: [২]বিন্দু বিন্দু সময় গড়িয়ে বেলা শেষে যখন ডাক এসে যায়, তখন একবুক হাহাকার নিয়ে বিদায় নিতে হয়। বিদায় নিতে হয় বড় বিষন্ন মনে। কারণ, এই ছোট্ট জীবনটুকু যেভাবে যে পথে চালানোর কথা আমরা সেভাবে সে পথে চালাতে পারিনি।

[৩]গুনাহ এখন আর আমাদের কাছে গুনাহ মনে হয়।একইভাবে ছোট ছোট নেক কাজ আমাদের চোখে মূল্যহীন। আমাদের সমাজে অবহেলিত। অথচ আল্লাহ বলেছেন, ‘কেউ যদি অণু পরিমাণ ভালো কিংবা খারাপ কাজ করে, তাও সে হিসাবের দিন দেখতে পাবে।’ সূরা জিলজাল, আয়াত ৭-৮।

[৪] আর শয়তান যখন কাউকে ধোঁকা দিতে চায়, তাকে কিন্তু প্রথমেই বড় কোনো গুনাহর কথা বলে না। একেবারে মামুলি কিছু গুনাহর কথা বলে। যা হয়তো বাইরে থেকে গুনাহ মনে নাও হতে পারে।

[৫] একসময়ের শ্রেষ্ঠ অলিও শয়তানের ধোঁকায় ধ্বংসের গভীর খাদে পড়ে গেছে, এমন উদাহরণ কম নেই ইতিহাসে। তাই গুনাহ ছোট বলে তাকে গুরুত্বহীন মনে করতে নেই।

[৬] এক আল্লাহর অলি তার মুরিদদের সব সময় বলতেন, মনে রেখ, আগুন কিংবা সাপকে কখনো ছোট মনে কোরো না। এ দুটো ছোট হলেও তোমার জীবন ও সম্পদ শেষ করে দিতে পারে। একইভাবে গুনাহকেও ছোট মনে কোরো না। ছোট গুনাহই তোমার বড় আখেরাতকে নষ্ট করে দিতে পারে।

[৭] কবি শেখ সাদি (রহ.) বড় সুন্দর উপদেশ দিয়েছেন আমাদের -পাপকে ছোট মনে কোরো না। এই ছোট পাপ থেকে যদি তুমি বেঁচে থাকতে না পার, এমন একদিন আসবে, বড় পাপ থেকেও তুমি ফিরতে পারবে না।’ আল্লাহ আমাদের সবাইকে গুনাহ থেকে মুক্ত থাকার তাওফিক দান করুন। আমীন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত